BDpress

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সভাপতি-সম্পাদকসহ সাত সাংবাদিকের জামিন

জেলা প্রতিনিধি

অ+ অ-
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সভাপতি-সম্পাদকসহ সাত সাংবাদিকের জামিন
সাতক্ষীরার দৈনিক সাতনদী সম্পাদকের দায়ের করা মামলায় জামিন লাভ করেছেন প্রেসক্লাব সভাপতি সম্পাদকসহ সাত সাংবাদিক। সোমবার দুপুরে তারা স্বেচ্ছায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হাসান তা মঞ্জুর করেন।

জামিন প্রাপ্ত সাংবাদিকরা হলেন- সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক আবদুল বারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম কামরুজ্জামান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জ্বল, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ইয়ারব হোসেন ও দৈনিক পত্রদূতের ফটো সাংবাদিক আবদুর রহিম।

২০১১ সালের ২৭ অক্টোবর সাতক্ষীরার সাংবাদিকদের মধ্যে দ্বন্দ্বের জেরে এক অপ্রীতিকর ঘটনায় একটি ফৌজদারি মামলার সৃষ্টি হয়। মামলাটি দায়ের করেন হাবিবুর রহমান হাবিব। এ মামলায় বিবাদী করা হয় ওই সাত সাংবাদিককে।

বিবাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. শাহ আলম। তাকে সহায়তা করেন সাবেক পিপি এড. সৈয়দ ইফতেখার আলি, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. আবদুল মজিদ, অতিরিক্ত পিপি এড. ফাহিমুল হক কিসলু ,সাবেক এপিপি এড. এবিএম সেলিম, এড. আবদুস সামাদ, এড. খায়রুল বদিউজ্জামান, এড. বাসারতউল্লাহ আওরঙ্গী বাবলা, এড. মনিরউদ্দিন, এড. আবদুল্লাহ হাবিবসহ এক ডজনেরও বেশি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী।

এ সময় আদালতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক আবু আহমেদ, সাবেক সভাপতি সুভাষ চৌধুরী, দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক জিএম নুর ইসলাম, প্রথম আলোর কল্যাণ ব্যানার্জি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপী, প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য শহিদুল ইসলাম, দৈনিক খুলনাঞ্চল ও পরিবর্তন ডমকমের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি মো. ইব্রাহীম খলিল প্রমুখ।

বিডিপ্রেস/আরজে


এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সভাপতি-সম্পাদকসহ সাত সাংবাদিকের জামিন


সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সভাপতি-সম্পাদকসহ সাত সাংবাদিকের জামিন

জামিন প্রাপ্ত সাংবাদিকরা হলেন- সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক আবদুল বারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম কামরুজ্জামান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জ্বল, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ইয়ারব হোসেন ও দৈনিক পত্রদূতের ফটো সাংবাদিক আবদুর রহিম।

২০১১ সালের ২৭ অক্টোবর সাতক্ষীরার সাংবাদিকদের মধ্যে দ্বন্দ্বের জেরে এক অপ্রীতিকর ঘটনায় একটি ফৌজদারি মামলার সৃষ্টি হয়। মামলাটি দায়ের করেন হাবিবুর রহমান হাবিব। এ মামলায় বিবাদী করা হয় ওই সাত সাংবাদিককে।

বিবাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. শাহ আলম। তাকে সহায়তা করেন সাবেক পিপি এড. সৈয়দ ইফতেখার আলি, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. আবদুল মজিদ, অতিরিক্ত পিপি এড. ফাহিমুল হক কিসলু ,সাবেক এপিপি এড. এবিএম সেলিম, এড. আবদুস সামাদ, এড. খায়রুল বদিউজ্জামান, এড. বাসারতউল্লাহ আওরঙ্গী বাবলা, এড. মনিরউদ্দিন, এড. আবদুল্লাহ হাবিবসহ এক ডজনেরও বেশি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী।

এ সময় আদালতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক আবু আহমেদ, সাবেক সভাপতি সুভাষ চৌধুরী, দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক জিএম নুর ইসলাম, প্রথম আলোর কল্যাণ ব্যানার্জি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপী, প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য শহিদুল ইসলাম, দৈনিক খুলনাঞ্চল ও পরিবর্তন ডমকমের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি মো. ইব্রাহীম খলিল প্রমুখ।

বিডিপ্রেস/আরজে


স্পটলাইট