BDpress

ডোকালাম সীমান্তে সেনা অভিযানের পথে চীন!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ+ অ-
ডোকালাম সীমান্তে সেনা অভিযানের পথে চীন!
ডোকলাম থেকে ভারতীয় সেনা হটাতে ছোটখাটো মিলিটারি অপারেশন চালাতে চলেছে চীন। আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যেই চীন এই অপারেশন চালাবে।

সম্প্রতি চৈনিক সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস্-এ এই খবর প্রকাশিত হয়েছে। গ্লোবাল টাইমস্-এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, দীর্ঘদিন ধরে ডোকলামে ভারত ও চীন সেনা মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রয়েছে। বার বার বলা সত্ত্বেও ভারত পিছু হটছে না। আর সে কারণেই চীনের এই সিদ্ধান্ত।

হু ঝিইয়ং নামে সাংহাই অ্যাকাডেমি অব সোশ্যাল সায়েন্সেস-এর এক রিসার্চ ফেলোকে উদ্ধৃত করে এই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে গ্লোবাল টাইমস। রিপোর্টে হু ঝিইয়ং জানিয়েছেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়কে সেনা প্রত্যাহার করতে বলবে চীন। তা যদি না করা হয় তা হলে আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যেই ওই অভিযান হবে। কারণ আর বেশি দিন চীনের সীমান্তে ভারতীয় সেনার অনুপ্রবেশ সহ্য করবে না চীন।

গত বৃহস্পতিবার সংসদে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ যুদ্ধের পথে না গিয়ে কূটনৈতিক পথেই ডোকালাম সমস্যা সমাধানের কথা বলেছিলেন।

এ জন্য দু’দেশকেই আগে ডোকলাম থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে হবে এবং তার পর আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের পথ খুঁজে বের করার কথা বলেন সুষমা। এর এক দিন পরেই চীনের সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশিত হয়।
বিডিপ্রেস/আলী

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ডোকালাম সীমান্তে সেনা অভিযানের পথে চীন!


ডোকালাম সীমান্তে সেনা অভিযানের পথে চীন!

সম্প্রতি চৈনিক সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস্-এ এই খবর প্রকাশিত হয়েছে। গ্লোবাল টাইমস্-এ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, দীর্ঘদিন ধরে ডোকলামে ভারত ও চীন সেনা মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রয়েছে। বার বার বলা সত্ত্বেও ভারত পিছু হটছে না। আর সে কারণেই চীনের এই সিদ্ধান্ত।

হু ঝিইয়ং নামে সাংহাই অ্যাকাডেমি অব সোশ্যাল সায়েন্সেস-এর এক রিসার্চ ফেলোকে উদ্ধৃত করে এই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে গ্লোবাল টাইমস। রিপোর্টে হু ঝিইয়ং জানিয়েছেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়কে সেনা প্রত্যাহার করতে বলবে চীন। তা যদি না করা হয় তা হলে আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যেই ওই অভিযান হবে। কারণ আর বেশি দিন চীনের সীমান্তে ভারতীয় সেনার অনুপ্রবেশ সহ্য করবে না চীন।

গত বৃহস্পতিবার সংসদে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ যুদ্ধের পথে না গিয়ে কূটনৈতিক পথেই ডোকালাম সমস্যা সমাধানের কথা বলেছিলেন।

এ জন্য দু’দেশকেই আগে ডোকলাম থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে হবে এবং তার পর আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের পথ খুঁজে বের করার কথা বলেন সুষমা। এর এক দিন পরেই চীনের সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশিত হয়।
বিডিপ্রেস/আলী

স্পটলাইট