BDpress

কুড়িগ্রামে বন্যায় প্লাবিত তিন শতাধিক গ্রাম

জেলা প্রতিবেদক

অ+ অ-
কুড়িগ্রামে বন্যায় প্লাবিত তিন শতাধিক গ্রাম
মারাত্মক অবনতি হয়েছে কুড়িগ্রামের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তিস্তা ও দুধকুমারসহ প্রধান প্রধান সব নদ-নদীতে।

কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ধরলা নদীতে ৮৬ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্রে ৫৮ সেন্টিমিটার, দুধকুমরে ৬০ সেন্টিমিটার ও তিস্তায় ৫৫ সেন্টিমিটার পানি বেড়েছে।

জানা গেছে, বন্যার পানিতে কুড়িগ্রামের ৯টি উপজেলার তিন শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে মানুষ। পাটেশ্বরী নামক স্থানে কুড়িগ্রাম-ভূরুঙ্গামারী সড়কের ৩টি স্থানে বন্যার পানি প্রবাহিত হওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। 

এছাড়াও বেড়িবাঁধ ভেঙে রাজারহাটের কালুয়ারচরে ভেসে গেছে ২০টি বাড়ি। ফুলবাড়ী-নাগেশ্বরী সড়কে পানি ওঠায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।  তাছাড়াও হাজার হাজার হেক্টর জমির আমন ও সবজি ক্ষেত বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। সেই সঙ্গে ভেসে গেছে বেশ কিছু গবাদিপশু।
বিডিপ্রেস/আলী

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

কুড়িগ্রামে বন্যায় প্লাবিত তিন শতাধিক গ্রাম


কুড়িগ্রামে বন্যায় প্লাবিত তিন শতাধিক গ্রাম

কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ধরলা নদীতে ৮৬ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্রে ৫৮ সেন্টিমিটার, দুধকুমরে ৬০ সেন্টিমিটার ও তিস্তায় ৫৫ সেন্টিমিটার পানি বেড়েছে।

জানা গেছে, বন্যার পানিতে কুড়িগ্রামের ৯টি উপজেলার তিন শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে মানুষ। পাটেশ্বরী নামক স্থানে কুড়িগ্রাম-ভূরুঙ্গামারী সড়কের ৩টি স্থানে বন্যার পানি প্রবাহিত হওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। 

এছাড়াও বেড়িবাঁধ ভেঙে রাজারহাটের কালুয়ারচরে ভেসে গেছে ২০টি বাড়ি। ফুলবাড়ী-নাগেশ্বরী সড়কে পানি ওঠায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।  তাছাড়াও হাজার হাজার হেক্টর জমির আমন ও সবজি ক্ষেত বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। সেই সঙ্গে ভেসে গেছে বেশ কিছু গবাদিপশু।
বিডিপ্রেস/আলী

স্পটলাইট