BDpress

সারিন গ্যাস পূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণে সক্ষম উত্তর কোরিয়া: জাপান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ+ অ-
সারিন গ্যাস পূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণে সক্ষম উত্তর কোরিয়া: জাপান
আর্ন্তজাতিক মহলের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে একের পর এক পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে উত্তর কোরিয়া। আর তাদের প্রত্যেকটি অস্ত্র বিষাক্ত সারিন গ্যাস দিয়ে তৈরি করা হয়েছে বলে দাবি করছে জাপান।

শুধু তাই নয়, জাপানের দাবি অনুসারে, সারিন গ্যাস ভরা ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলা চালানোর সক্ষমতাও রয়েছে উত্তর কোরিয়ার। আর যদি এ হামলা করা হয় তাহলে সারা বিশ্বে কোটি কোটি মানুষের মৃত্যু হবে বলেও জানিয়েছে দেশটির সামরিক পর্যবেক্ষক দল।

প্রসঙ্গত, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে সম্প্রতি দাবি করেন, উত্তর কোরিয়া যেকোনো দিন জাপানের ওপর সারিন গ্যাস হামলা চালাতে পারে।  আবে আরো বলেন, 'আমরা সিরিয়া নিয়ে কথা বলছি।  অথচ, উত্তর কোরিয়ারও ক্ষমতা আছে, সারিন গ্যাস হামলা চালানোর। '

এদিকে দক্ষিণ কোরিয়ার দীর্ঘদিনের অভিযোগ, ১৯৮০ সাল থেকে রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার মজুদ করছে পিয়ংইয়ং। সিউলের দাবি, বর্তমানে পিয়ংইয়ংয়ের কাছে ২৫০০ থেকে ৫০০০ টন রাসায়নিক অস্ত্র রয়েছে। ২০১২ সালের এছাড়া একটি প্রতিবেদনে আমেরিকা জানিয়েছিল, বহু দিন ধরে রাসায়নিক কর্মসূচি চালাচ্ছে উত্তর কোরিয়া। তাদের ভাণ্ডারে প্রাণঘাতী নার্ভ গ্যাস রয়েছে।

উল্লেখ্য, সিরিয়ায় বিষাক্ত সারিন গ্যাস হামলার পর পরই উত্তর কোরিয়ার একটি উপদ্বীপের দিকে নৌবহর পাঠিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। যার প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রকেও পাল্টা হুমকি দিতে ছাড়েননি উত্তর কোরীয় প্রেসিডেন্ট কিম জং উন।
বিডিপ্রেস/আলী

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

সারিন গ্যাস পূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণে সক্ষম উত্তর কোরিয়া: জাপান


সারিন গ্যাস পূর্ণ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণে সক্ষম উত্তর কোরিয়া: জাপান

শুধু তাই নয়, জাপানের দাবি অনুসারে, সারিন গ্যাস ভরা ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলা চালানোর সক্ষমতাও রয়েছে উত্তর কোরিয়ার। আর যদি এ হামলা করা হয় তাহলে সারা বিশ্বে কোটি কোটি মানুষের মৃত্যু হবে বলেও জানিয়েছে দেশটির সামরিক পর্যবেক্ষক দল।

প্রসঙ্গত, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে সম্প্রতি দাবি করেন, উত্তর কোরিয়া যেকোনো দিন জাপানের ওপর সারিন গ্যাস হামলা চালাতে পারে।  আবে আরো বলেন, 'আমরা সিরিয়া নিয়ে কথা বলছি।  অথচ, উত্তর কোরিয়ারও ক্ষমতা আছে, সারিন গ্যাস হামলা চালানোর। '

এদিকে দক্ষিণ কোরিয়ার দীর্ঘদিনের অভিযোগ, ১৯৮০ সাল থেকে রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার মজুদ করছে পিয়ংইয়ং। সিউলের দাবি, বর্তমানে পিয়ংইয়ংয়ের কাছে ২৫০০ থেকে ৫০০০ টন রাসায়নিক অস্ত্র রয়েছে। ২০১২ সালের এছাড়া একটি প্রতিবেদনে আমেরিকা জানিয়েছিল, বহু দিন ধরে রাসায়নিক কর্মসূচি চালাচ্ছে উত্তর কোরিয়া। তাদের ভাণ্ডারে প্রাণঘাতী নার্ভ গ্যাস রয়েছে।

উল্লেখ্য, সিরিয়ায় বিষাক্ত সারিন গ্যাস হামলার পর পরই উত্তর কোরিয়ার একটি উপদ্বীপের দিকে নৌবহর পাঠিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। যার প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রকেও পাল্টা হুমকি দিতে ছাড়েননি উত্তর কোরীয় প্রেসিডেন্ট কিম জং উন।
বিডিপ্রেস/আলী

স্পটলাইট