BDpress

গরমে পান করুন আঙুরের জুস

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
গরমে পান করুন আঙুরের জুস
গরমে শরীরে তরলের দরকার সবচেয়ে বেশি। তাই গরমের সময় শরীর ঠিকঠাক রাখতে এমন খাবার খাওয়া দরকার যেগুলোতে প্রচুর জলীয় রয়েছে। এরকম একটি ফল হলো আঙুর। এতে প্রচুর পানি থাকায় গরমকালে শরীরে পানির চাহিদা পুরণ করে আঙুর। আঙুরে শতকরা ৮০ ভাগই জলীয় অংশ বা পানি। এর রয়েছে গুণ। আঙুর দিয়ে খুব সহজেই বানানো যায় জুস। আসুন জেনে নেয়া যাক আঙুরে কয়েকটি উপকারিতা সম্পর্কে:

স্মৃতিশক্তি বাড়ায়
গবেষকরা বলেন, রেসভেরাট্রল আমাদের স্মৃতিশক্তি বাড়ায়। আর আঙুরে প্রচুর রেসভেরাট্রল থাকায় প্রতিদিন খেলে স্মৃতিশক্তি বেড়ে যায় কয়েকগুণ। অনেকে ছোটখাট অনেক বিষয় দ্রুত ভুলে যান। আবার কখনো কখনো কথা স্মৃতি থেকে মুছে যায়। এটি আসলে এক ধরনের রোগ। রোগটি নিরাময়ে আঙুর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

চোখের জ্যোতি বাড়ায়
আঙুরে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন। ফলে চোখ ভালো রাখতে কার্যকর এই আঙুর। বয়সজনিত কারণে যারা চোখের সমস্যায় ভোগেন তাদের জন্য ভালো ওষুধ হলো আঙুর। সকালের নাস্তার সাথে পরিপূরক খাবার হিসেবে আঙুর রাখতে পারেন।

হাড় শক্ত করে
আঙুরে প্রচুর পরিমাণে আয়রন ও ম্যাংগানিজের মতো খনিজ পদার্থ থাকে;  যা হাড়ের গঠন ও হাড় শক্ত করতে সাহায্য করে।

তারুণ্য ধরে রাখতে 
আঙুরের বীজ ও খোসায় রয়েছে প্রচুর শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা তারুণ্য ধরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। অতএব দিনে একবার হলেও এক থোকা আঙুর খেতে পারেন।

ত্বকের সুরক্ষায়
আঙুরে থাকা ফাইটো কেমিক্যাল ও ফাইটো নিউট্রিয়েন্ট ত্বকের সুরক্ষায় কাজ করে। আঙুরে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখে।

হার্ট ভালো রাখে
রাতের খাবারের সময় এক গ্লাস খেতে পারেন আঙুরে জুস। এতে হার্ট সুস্থ থাকে।

কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে
কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে আঙুরের রস কার্যকরী ভূমিকা রাখে। আঙুর রয়েছে অর্গানিক এসিড, সেলুলাস ও চিনি যা কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে সহায়ক।

নিয়মিত রক্ত সঞ্চালন
যারা রক্ত সঞ্চালনের ভারসাম্যহীনতায় ভোগেন তাদের জন্য আঙুরের জুস খুবই উপকারী। এতে রয়েছে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস; যা নিয়মিত রক্ত সঞ্চালনে সহায়ক ও ইনসুলিন বৃদ্ধিকারক হিসেবে কাজ করে।

শরীর শীতল রাখে
আঙুরের জুসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফামিটরির মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে, যা শরীরের জ্বালাপোড়া ভাব দূর করে শরীরকে শীতল রাখে। এ ছাড়া আঙুর মাইগ্রেনের সমস্যা রোধ করে।

১০০ গ্রাম আঙুরে রয়েছে:
প্রতি ১০০ গ্রাম আঙুরে পাওয়া যায় ৬৯ কিলোক্যালরি,  ২ ভাগ চর্বি, ৪ ভাগ প্রোটিন এবং বাকী ৯৪ ভাগ জলীয়-খনিজ উপাদান। সূত্র: বোল্ড স্কাই ও ফ্যাট সিক্রেট

বিডিপ্রেস/মিঠু

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

গরমে পান করুন আঙুরের জুস


গরমে পান করুন আঙুরের জুস

স্মৃতিশক্তি বাড়ায়
গবেষকরা বলেন, রেসভেরাট্রল আমাদের স্মৃতিশক্তি বাড়ায়। আর আঙুরে প্রচুর রেসভেরাট্রল থাকায় প্রতিদিন খেলে স্মৃতিশক্তি বেড়ে যায় কয়েকগুণ। অনেকে ছোটখাট অনেক বিষয় দ্রুত ভুলে যান। আবার কখনো কখনো কথা স্মৃতি থেকে মুছে যায়। এটি আসলে এক ধরনের রোগ। রোগটি নিরাময়ে আঙুর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

চোখের জ্যোতি বাড়ায়
আঙুরে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন। ফলে চোখ ভালো রাখতে কার্যকর এই আঙুর। বয়সজনিত কারণে যারা চোখের সমস্যায় ভোগেন তাদের জন্য ভালো ওষুধ হলো আঙুর। সকালের নাস্তার সাথে পরিপূরক খাবার হিসেবে আঙুর রাখতে পারেন।

হাড় শক্ত করে
আঙুরে প্রচুর পরিমাণে আয়রন ও ম্যাংগানিজের মতো খনিজ পদার্থ থাকে;  যা হাড়ের গঠন ও হাড় শক্ত করতে সাহায্য করে।

তারুণ্য ধরে রাখতে 
আঙুরের বীজ ও খোসায় রয়েছে প্রচুর শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা তারুণ্য ধরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। অতএব দিনে একবার হলেও এক থোকা আঙুর খেতে পারেন।

ত্বকের সুরক্ষায়
আঙুরে থাকা ফাইটো কেমিক্যাল ও ফাইটো নিউট্রিয়েন্ট ত্বকের সুরক্ষায় কাজ করে। আঙুরে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখে।

হার্ট ভালো রাখে
রাতের খাবারের সময় এক গ্লাস খেতে পারেন আঙুরে জুস। এতে হার্ট সুস্থ থাকে।

কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে
কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে আঙুরের রস কার্যকরী ভূমিকা রাখে। আঙুর রয়েছে অর্গানিক এসিড, সেলুলাস ও চিনি যা কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে সহায়ক।

নিয়মিত রক্ত সঞ্চালন
যারা রক্ত সঞ্চালনের ভারসাম্যহীনতায় ভোগেন তাদের জন্য আঙুরের জুস খুবই উপকারী। এতে রয়েছে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস; যা নিয়মিত রক্ত সঞ্চালনে সহায়ক ও ইনসুলিন বৃদ্ধিকারক হিসেবে কাজ করে।

শরীর শীতল রাখে
আঙুরের জুসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফামিটরির মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে, যা শরীরের জ্বালাপোড়া ভাব দূর করে শরীরকে শীতল রাখে। এ ছাড়া আঙুর মাইগ্রেনের সমস্যা রোধ করে।

১০০ গ্রাম আঙুরে রয়েছে:
প্রতি ১০০ গ্রাম আঙুরে পাওয়া যায় ৬৯ কিলোক্যালরি,  ২ ভাগ চর্বি, ৪ ভাগ প্রোটিন এবং বাকী ৯৪ ভাগ জলীয়-খনিজ উপাদান। সূত্র: বোল্ড স্কাই ও ফ্যাট সিক্রেট

বিডিপ্রেস/মিঠু

স্পটলাইট