BDpress

ত্বক ও চুলের যত্নে কালোজিরা

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
ত্বক ও চুলের যত্নে কালোজিরা
কালোজিরার গুণের কথা তো আর নতুন করে কিছু বলার নেই। তবুও আমরা অনেকে জানি যে কালোজিরা অথবা কালোজিরার তেল বিভিন্ন সমস্যার জন্য খাওয়া হয়ে থাকে। কিন্তু শুধু খাওয়া না, আপনার ত্বক ও চুলের বিভিন্ন সমস্যার জন্য সরাসরি ব্যবহার করতে পারবেন। আসুন তাহলে জেনে নেই কি কি সমস্যায় কীভাবে ব্যবহার করবেন কালোজিরা।

কালোজিরার তেল চুলের কোষ ও ফলিকলকে চাঙ্গা করে ও শক্তিশালী করে যার ফলে নতুন চুল সৃষ্টি হয়। এছাড়াও কালোজিরার তেল চুলের গোড়া শক্ত করে ও চুল পড়া কমায়।

ত্বকের গঠনের উন্নতি ও ত্বকের প্রভা বৃদ্ধির জন্য কালোজিরা অত্যাবশ্যকীয়। এতে লিনোলেইক ও লিনোলেনিক নামের এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিড থাকে যা পরিবেশের প্রখরতা, স্ট্রেস ইত্যাদি থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করে এবং ত্বককে সুন্দর করে ও ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে।

মধু ও কালোজিরার পেস্ট বানিয়ে ত্বকে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা বা একঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন, এতে ত্বক উজ্জ্বল হবে।

যদি আপনার ব্রণের সমস্যা থাকে তাহলে আপেল সাইডার ভিনেগারের সাথে কালোজিরা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। নিয়মিত লাগালে ব্রণ দূর হবে।

শুষ্ক ত্বকের জন্য কালোজিরার গুঁড়া ও কালোজিরার তেলের সাথে তিলের তেল মিশিয়ে ত্বকে লাগান। এক সপ্তাহের মধ্যে লক্ষণীয় পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

বিডিপ্রেস/মিঠু

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ত্বক ও চুলের যত্নে কালোজিরা


ত্বক ও চুলের যত্নে কালোজিরা

কালোজিরার তেল চুলের কোষ ও ফলিকলকে চাঙ্গা করে ও শক্তিশালী করে যার ফলে নতুন চুল সৃষ্টি হয়। এছাড়াও কালোজিরার তেল চুলের গোড়া শক্ত করে ও চুল পড়া কমায়।

ত্বকের গঠনের উন্নতি ও ত্বকের প্রভা বৃদ্ধির জন্য কালোজিরা অত্যাবশ্যকীয়। এতে লিনোলেইক ও লিনোলেনিক নামের এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিড থাকে যা পরিবেশের প্রখরতা, স্ট্রেস ইত্যাদি থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করে এবং ত্বককে সুন্দর করে ও ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে।

মধু ও কালোজিরার পেস্ট বানিয়ে ত্বকে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা বা একঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন, এতে ত্বক উজ্জ্বল হবে।

যদি আপনার ব্রণের সমস্যা থাকে তাহলে আপেল সাইডার ভিনেগারের সাথে কালোজিরা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। নিয়মিত লাগালে ব্রণ দূর হবে।

শুষ্ক ত্বকের জন্য কালোজিরার গুঁড়া ও কালোজিরার তেলের সাথে তিলের তেল মিশিয়ে ত্বকে লাগান। এক সপ্তাহের মধ্যে লক্ষণীয় পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

বিডিপ্রেস/মিঠু

স্পটলাইট