BDpress

দিনে আট ঘণ্টার অধিক কাজ করা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরুপ!

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
দিনে আট ঘণ্টার অধিক কাজ করা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরুপ!
আপনি কি কর্মক্ষেত্রে সবার শেষে বের হতে হতে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছেন? কিন্তু নতুন গবেষণা বলছে, আপনার রুটিন নিয়ে দ্বিতীয়বার ভাবার সময় চলে এসেছে। গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে আমেরিকান জার্নাল অব এপিডেমিওলোজিতে। সেখানে বলা হয়েছে, অতিরিক্ত ধকল, উচ্চ রক্তচাপ,অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস এবং সেই সঙ্গে দীর্ঘ কার্যপ্রহর কর্মীদের মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যার সৃষ্টি করে থাকে।

গত পঞ্চাশ বছরের বিভিন্ন গবেষণা একত্রিত করে ফলাফল নির্ধারিত হয়েছে যে, যারা প্রত্যহ আট ঘণ্টা অফিস কিংবা কর্মক্ষেত্রে ব্যয় করেন, তাদের তুলনায় যারা দীর্ঘ সময় ব্যয় করেন তাদের হৃদরোগজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা শতকরা চল্লিশ থেকে আশি ভাগ। 

ফিনিশ ইন্সটিটিউট অব অকিউপেশনাল হেলথের সাম্প্রতিক সময়ের গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে যে, ২০১১ সালের একটি জরিপ মতে দিনে এগারো ঘণ্টার অধিক কার্যে ব্যয় করলে হৃদযন্ত্রের রোগের সম্ভাবনা বেড়ে যায় শতকরা ৬৭ ভাগ। 

প্রধান গবেষক ডঃ মারিয়ানা ভিরট্যানেন এবং তার দল ১৯৫৮ সাল থেকে শুরু করে বারোটি বিভিন্ন গবেষণায় এটিই খুঁজে পেয়েছেন যে দীর্ঘ সময় কাজ করলে স্বাস্থ্যের করুণ পরিণতি ঘটতে থাকে। পুরো গবেষণায় ২২,০০০ এর অধিক অংশগ্রহণকারী ছিলেন ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, সুইডেন, ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক এবং নেদারল্যান্ড থেকে।

দীর্ঘ সময়ে একনাগাড়ে কাজ করা এবং হার্টের সমস্যার মধ্যে এক ধরনের বিশেষ যোগসূত্র আছে। নিজের উপর অত্যধিক মানসিক ও শারীরিক চাপ প্রয়োগ করলে প্রচণ্ড ধকলের প্রকোপ দেখা দেয়।

গবেষকেরা আরো বলেন, দীর্ঘ সময় কাজ করার পাশাপাশি স্ট্রেস হরমোনের লেভেল বেড়ে গেলে, অস্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়া করলে এবং শারীরিক পরিশ্রম না করলে অসুস্থ হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায় বহুগুণে।

সুতরাং, নিজেকে প্রশ্ন করুন, কর্মক্ষেত্রে অধিক সময় বিনিয়োগ করাটা কি আপনার জন্য লাভজনক হচ্ছে নাকি আপনি ধীরে ধীরে নিজেকে ও নিজের স্বাস্থ্যকে হুমকির পথে নিয়ে যাচ্ছেন?

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

দিনে আট ঘণ্টার অধিক কাজ করা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরুপ!


দিনে আট ঘণ্টার অধিক কাজ করা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরুপ!

গত পঞ্চাশ বছরের বিভিন্ন গবেষণা একত্রিত করে ফলাফল নির্ধারিত হয়েছে যে, যারা প্রত্যহ আট ঘণ্টা অফিস কিংবা কর্মক্ষেত্রে ব্যয় করেন, তাদের তুলনায় যারা দীর্ঘ সময় ব্যয় করেন তাদের হৃদরোগজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা শতকরা চল্লিশ থেকে আশি ভাগ। 

ফিনিশ ইন্সটিটিউট অব অকিউপেশনাল হেলথের সাম্প্রতিক সময়ের গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে যে, ২০১১ সালের একটি জরিপ মতে দিনে এগারো ঘণ্টার অধিক কার্যে ব্যয় করলে হৃদযন্ত্রের রোগের সম্ভাবনা বেড়ে যায় শতকরা ৬৭ ভাগ। 

প্রধান গবেষক ডঃ মারিয়ানা ভিরট্যানেন এবং তার দল ১৯৫৮ সাল থেকে শুরু করে বারোটি বিভিন্ন গবেষণায় এটিই খুঁজে পেয়েছেন যে দীর্ঘ সময় কাজ করলে স্বাস্থ্যের করুণ পরিণতি ঘটতে থাকে। পুরো গবেষণায় ২২,০০০ এর অধিক অংশগ্রহণকারী ছিলেন ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, সুইডেন, ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক এবং নেদারল্যান্ড থেকে।

দীর্ঘ সময়ে একনাগাড়ে কাজ করা এবং হার্টের সমস্যার মধ্যে এক ধরনের বিশেষ যোগসূত্র আছে। নিজের উপর অত্যধিক মানসিক ও শারীরিক চাপ প্রয়োগ করলে প্রচণ্ড ধকলের প্রকোপ দেখা দেয়।

গবেষকেরা আরো বলেন, দীর্ঘ সময় কাজ করার পাশাপাশি স্ট্রেস হরমোনের লেভেল বেড়ে গেলে, অস্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়া করলে এবং শারীরিক পরিশ্রম না করলে অসুস্থ হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায় বহুগুণে।

সুতরাং, নিজেকে প্রশ্ন করুন, কর্মক্ষেত্রে অধিক সময় বিনিয়োগ করাটা কি আপনার জন্য লাভজনক হচ্ছে নাকি আপনি ধীরে ধীরে নিজেকে ও নিজের স্বাস্থ্যকে হুমকির পথে নিয়ে যাচ্ছেন?

বিডিপ্রেস/আরজে

স্পটলাইট