BDpress

মরার আগে পাকিস্তান দেখে আসার ইচ্ছা ঋষির!

বিনোদন ডেস্ক

অ+ অ-
মরার আগে পাকিস্তান দেখে আসার ইচ্ছা ঋষির!
মৃত্যুর আগে অন্তত একবারের জন্য হলেও নিজের বাপ-দাদার ভিটে পাকিস্তানে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঝড় তুলেছেন ভারতীয় অভিনেতা ঋষি কাপুর। রোববার এক টুইটবার্তায় নিজের এ ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন তিনি।এ সময় ঋষি কাপুর নিজের দুই ছেলেমেয়ে রণবীর আর রিদ্ধিমাকেও তাদের শিকড় চেনাতে নিয়ে যাওয়ার আগ্রহের কথা জানান।

এদিকে ঋষির টুইট নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। অবশ্য পাকিস্তান নিয়ে মন্তব্যের জেরে সামাজিকমাধ্যমে ট্রল হওয়া ঋষির জন্য নতুন নয়।

টুইটবার্তায় ঋষি লিখেন- ‘আমার বয়স এখন ৬৫। মরার আগে পাকিস্তানটা দেখে আসতে চাই। চাই আমার ছেলে ও মেয়েও চিনুক তাদের শিকড়টাকে। এটি অন্তত ঘটুক!’

কাপুর পরিবারের আদি বাড়ি পাকিস্তানের পেশওয়ারে। ১৯১৮-২২ সালের মধ্যে বাড়িটা বানিয়েছিলেন ঋষির প্রপিতামহ, প্রয়াত পৃথ্বীরাজ কাপুরের বাবা দেওয়ান বশেশ্বরনাথ কাপুর।

১৯৪৭ সালের দেশভাগের পর পেশওয়ার ছেড়ে মুম্বাইয়ে চলে এসেছিল কাপুর পরিবার।

বিডিপ্রেস/মিঠু

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

মরার আগে পাকিস্তান দেখে আসার ইচ্ছা ঋষির!


মরার আগে পাকিস্তান দেখে আসার ইচ্ছা ঋষির!

এদিকে ঋষির টুইট নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। অবশ্য পাকিস্তান নিয়ে মন্তব্যের জেরে সামাজিকমাধ্যমে ট্রল হওয়া ঋষির জন্য নতুন নয়।

টুইটবার্তায় ঋষি লিখেন- ‘আমার বয়স এখন ৬৫। মরার আগে পাকিস্তানটা দেখে আসতে চাই। চাই আমার ছেলে ও মেয়েও চিনুক তাদের শিকড়টাকে। এটি অন্তত ঘটুক!’

কাপুর পরিবারের আদি বাড়ি পাকিস্তানের পেশওয়ারে। ১৯১৮-২২ সালের মধ্যে বাড়িটা বানিয়েছিলেন ঋষির প্রপিতামহ, প্রয়াত পৃথ্বীরাজ কাপুরের বাবা দেওয়ান বশেশ্বরনাথ কাপুর।

১৯৪৭ সালের দেশভাগের পর পেশওয়ার ছেড়ে মুম্বাইয়ে চলে এসেছিল কাপুর পরিবার।

বিডিপ্রেস/মিঠু

স্পটলাইট