BDpress

‘রেফ, আপনি খুব খারাপ!’

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
‘রেফ, আপনি খুব খারাপ!’
রেফারির উপর ফুটবলারদের চড়াও হওয়ার দৃশ্য ফুটবলের নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। গালিগালাজ, ধাক্কাধাক্কি, এমনকি হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে আকছার। না, ইসকো এতোটা বেপরোয়া কাণ্ড ঘটাননি। রাগে-দুঃখে মেজাজ হারিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার রেফারিকে ছোট্ট করে একটা গালি দিয়েছেন শুধু। বলেছেন, ‘রেফ, আপনি খুব খারাপ!’

ছোটখাট গড়নের ইসকো রেফারিকে এই গালিটা দিয়েছেন শনিবার রাতে। অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ও রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যকার মার্দ্রিদ ডার্বিতে। অ্যাতলেতিকোর ঘরের মাঠের এই ম্যাচে গোলশূন্য ড্র হতাশায় পুড়তে হয়েছে রিয়ালকে।

স্বাভাবিকভাবেই রিয়ালের খেলোয়াড়েরা খুব হতাশ। তবে কেউ কেউ জয় না পাওয়ার জন্য কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন রেফারি ডেভিড ফার্নান্দেজ বরবালানকে। রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলো যেমন ম্যাচ শেষে স্পষ্টই বলেছেন, ম্যাচে অন্তত ৩-৪টি পেনাল্টি প্রাপ্য ছিল তাদের। কিন্তু তার সবক’টিই রেফারি এড়িয়ে গেছেন। বা তার চোখ এড়িয়ে গেছে!

শেষে রেফারির সমালোচনা করায় শাস্তি হয়, সেই ভয়ে মার্সেলো বিষয়টাকে আখ্যায়িত করেছেন ‘রেফারির ভুল’ হিসেবে। বলেছেন, ফুটবলে রেফারিদের ভুল হয়ই। কোচ জিনেদিন জিদানও হেঁটেছেন মার্সেলোর পথেই। ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে রেফারিং প্রসঙ্গ উঠতেই রিয়াল কোচ বলেন, ‘রেফারিং নিয়ে কিছু বলতে চাই না। তিনি তার দায়িত্ব পালন করেছেন। ম্যাচ শেষে ওসব নিয়ে কথা বলে কোনো ফায়দা নেই।’

ইসকোর ক্ষোভটা অবশ্য শুধু পেনাল্টি না দেওয়া দিয়ে নয়। তার মতে পুরো ম্যাচেই রেফারিং তাদের বিপক্ষে গেছে। তাদের যুক্তিসংগত ফাউলগুলোও রেফারি দেননি। অন্যদিকে অ্যাতলেতিকোর পক্ষে কারণ ছাড়াই বাঁশি বাজিয়েছেন। আর রেফারি এই কাজটা তার বেলায়ই করেছেন একাধিকবার।

একবার বল দখলের লড়াইয়ে তাকে সজোরে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন অ্যাতলেতিকোর উরুগুইয়ান ডিফেন্ডার গাবি। খুব কাছেই দাঁড়িয়ে দিলেন রেফারি ডেভিড ফার্নান্দেজ বরবালান। কিন্তু তিনি ফাউলের বাঁশি বাজাননি।

উল্টো ৬৪ মিনিটে অযথাই তার বিরুদ্ধে হ্যান্ডবলের বাঁশি বাজান রেফারি! উড়ে আসা বল কাঁধ দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার চেষ্টা করেন ইসকো। রিপ্লেতে পরিস্কার, বল কাঁধ দিয়েই থামিয়েছেন ইসকো। কিন্তু রেফারি বাঁজিয়ে বসেন হ্যান্ডবলের বাঁশি।

মিনিট কয়েকের ব্যবধানে রেফারির দুদুটো বাজে সিদ্ধান্তে মেজাজ হারিয়ে ফেলেন রিয়ালের ২৫ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। হাতের ইশারায় তিনি রেফারিকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করেন, বল কাঁধ দিয়ে নামিয়েছেন। কিন্তু রেফারি তার আবেদনে সারা না দিয়ে নিজের সিদ্ধান্তেই অটল থাকেন। স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক জানিয়েছে, উত্তেজিত হয়ে ইসকো তখনই ‘রেফারি আপনি খুব খারাপ’ দিয়ে বসেন।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

‘রেফ, আপনি খুব খারাপ!’


‘রেফ, আপনি খুব খারাপ!’

ছোটখাট গড়নের ইসকো রেফারিকে এই গালিটা দিয়েছেন শনিবার রাতে। অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ও রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যকার মার্দ্রিদ ডার্বিতে। অ্যাতলেতিকোর ঘরের মাঠের এই ম্যাচে গোলশূন্য ড্র হতাশায় পুড়তে হয়েছে রিয়ালকে।

স্বাভাবিকভাবেই রিয়ালের খেলোয়াড়েরা খুব হতাশ। তবে কেউ কেউ জয় না পাওয়ার জন্য কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন রেফারি ডেভিড ফার্নান্দেজ বরবালানকে। রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলো যেমন ম্যাচ শেষে স্পষ্টই বলেছেন, ম্যাচে অন্তত ৩-৪টি পেনাল্টি প্রাপ্য ছিল তাদের। কিন্তু তার সবক’টিই রেফারি এড়িয়ে গেছেন। বা তার চোখ এড়িয়ে গেছে!

শেষে রেফারির সমালোচনা করায় শাস্তি হয়, সেই ভয়ে মার্সেলো বিষয়টাকে আখ্যায়িত করেছেন ‘রেফারির ভুল’ হিসেবে। বলেছেন, ফুটবলে রেফারিদের ভুল হয়ই। কোচ জিনেদিন জিদানও হেঁটেছেন মার্সেলোর পথেই। ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে রেফারিং প্রসঙ্গ উঠতেই রিয়াল কোচ বলেন, ‘রেফারিং নিয়ে কিছু বলতে চাই না। তিনি তার দায়িত্ব পালন করেছেন। ম্যাচ শেষে ওসব নিয়ে কথা বলে কোনো ফায়দা নেই।’

ইসকোর ক্ষোভটা অবশ্য শুধু পেনাল্টি না দেওয়া দিয়ে নয়। তার মতে পুরো ম্যাচেই রেফারিং তাদের বিপক্ষে গেছে। তাদের যুক্তিসংগত ফাউলগুলোও রেফারি দেননি। অন্যদিকে অ্যাতলেতিকোর পক্ষে কারণ ছাড়াই বাঁশি বাজিয়েছেন। আর রেফারি এই কাজটা তার বেলায়ই করেছেন একাধিকবার।

একবার বল দখলের লড়াইয়ে তাকে সজোরে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন অ্যাতলেতিকোর উরুগুইয়ান ডিফেন্ডার গাবি। খুব কাছেই দাঁড়িয়ে দিলেন রেফারি ডেভিড ফার্নান্দেজ বরবালান। কিন্তু তিনি ফাউলের বাঁশি বাজাননি।

উল্টো ৬৪ মিনিটে অযথাই তার বিরুদ্ধে হ্যান্ডবলের বাঁশি বাজান রেফারি! উড়ে আসা বল কাঁধ দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার চেষ্টা করেন ইসকো। রিপ্লেতে পরিস্কার, বল কাঁধ দিয়েই থামিয়েছেন ইসকো। কিন্তু রেফারি বাঁজিয়ে বসেন হ্যান্ডবলের বাঁশি।

মিনিট কয়েকের ব্যবধানে রেফারির দুদুটো বাজে সিদ্ধান্তে মেজাজ হারিয়ে ফেলেন রিয়ালের ২৫ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। হাতের ইশারায় তিনি রেফারিকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করেন, বল কাঁধ দিয়ে নামিয়েছেন। কিন্তু রেফারি তার আবেদনে সারা না দিয়ে নিজের সিদ্ধান্তেই অটল থাকেন। স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক জানিয়েছে, উত্তেজিত হয়ে ইসকো তখনই ‘রেফারি আপনি খুব খারাপ’ দিয়ে বসেন।

বিডিপ্রেস/আরজে