BDpress

রাজনৈতিক শূন্যতার মুখোমুখি রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ+ অ-
রাজনৈতিক শূন্যতার মুখোমুখি রাশিয়া
খুব শীঘ্রই রাশিয়ায় রাজনৈতিক শূন্যতা দেখা যেতে পারে। দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট পুতিন আর ভোটে লড়তে চাইছেন না। বিরোধীরাও কোনও সর্বসম্মত প্রার্থী দাঁড় করাতে পারছে না। এই অবস্থায় দেশের ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তিত রুশ জনতা।

বিশাল আকৃতির এক দেশ এই রাশিয়া। এতটাই বিশাল যে, দেশে দুইটা টাইম জোন। এমন এক দেশের নেতৃত্বে পুতিনের মতো এক নেতাকে বসিয়ে নিশ্চিন্ত ছিলেন রাশিয়ান জনতা। শুধু তো দেশকে নেতৃত্ব দেওয়া নয়, আমেরিকার চোখে চোখ রেখে লড়ার মানসিকতাও তো থাকতে হবে। সেক্ষেত্রে ভ্লাদিমির পুতিন সকলের মন জয় করেছেন সেটি মানতেই হবে।

জনমত সমীক্ষায় দেখা গেছে। জনপ্রিয়তায় এখনও পুতিন অপ্রতিদ্বন্দ্বী।
৬০ থেকে ৭০ শতাংশ মানুষই এখন তাকে চান। সেই পুতিন সড়ে গেলে কী হবে তা বুঝে উঠতে পারছেন না রাশিয়ার আম জনতা। ঘনিষ্ঠ মহলে পুতিন জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি আগের মতো নির্বাচনে দৌড়ঝাঁপ করতে পারবেন না।  

২০১১-১২ সালের বিতর্কিত নির্বাচনের মাত্র ছয়‌ মাস আগে দিমিত্রি মেদভেদেবকে প্রধানমন্ত্রিত্ব সঁপে দিয়ে নিজে প্রেসিডেন্ট হন। তা নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। তবে সব কিছুকে ছাপিয়ে শারীরিক ও মানসিকভাবে তিনি নির্বাচনে জড়িয়ে পড়েন। আর ৭০ শতাংশের ওপর জনপ্রিয় ভোট পান। 
বিডিপ্রেস/আলী



এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

রাজনৈতিক শূন্যতার মুখোমুখি রাশিয়া


রাজনৈতিক শূন্যতার মুখোমুখি রাশিয়া

বিশাল আকৃতির এক দেশ এই রাশিয়া। এতটাই বিশাল যে, দেশে দুইটা টাইম জোন। এমন এক দেশের নেতৃত্বে পুতিনের মতো এক নেতাকে বসিয়ে নিশ্চিন্ত ছিলেন রাশিয়ান জনতা। শুধু তো দেশকে নেতৃত্ব দেওয়া নয়, আমেরিকার চোখে চোখ রেখে লড়ার মানসিকতাও তো থাকতে হবে। সেক্ষেত্রে ভ্লাদিমির পুতিন সকলের মন জয় করেছেন সেটি মানতেই হবে।

জনমত সমীক্ষায় দেখা গেছে। জনপ্রিয়তায় এখনও পুতিন অপ্রতিদ্বন্দ্বী।
৬০ থেকে ৭০ শতাংশ মানুষই এখন তাকে চান। সেই পুতিন সড়ে গেলে কী হবে তা বুঝে উঠতে পারছেন না রাশিয়ার আম জনতা। ঘনিষ্ঠ মহলে পুতিন জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি আগের মতো নির্বাচনে দৌড়ঝাঁপ করতে পারবেন না।  

২০১১-১২ সালের বিতর্কিত নির্বাচনের মাত্র ছয়‌ মাস আগে দিমিত্রি মেদভেদেবকে প্রধানমন্ত্রিত্ব সঁপে দিয়ে নিজে প্রেসিডেন্ট হন। তা নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। তবে সব কিছুকে ছাপিয়ে শারীরিক ও মানসিকভাবে তিনি নির্বাচনে জড়িয়ে পড়েন। আর ৭০ শতাংশের ওপর জনপ্রিয় ভোট পান। 
বিডিপ্রেস/আলী