BDpress

স্কুলছাত্রীকে অপহরণ, মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি!

জেলা প্রতিবেদক

অ+ অ-
স্কুলছাত্রীকে অপহরণ, মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি!
অপহরণের দুই দিন পরও টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার দশম শ্রেণির ছাত্রী উদ্ধার হয়নি। অপহরণকারীরা মামলা তুলে নিতে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ছাত্রীর বাবা। মঙ্গলবার সকালে অপহৃত ওই ছাত্রীর বাবা মির্জাপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রীর বাবা অভিযোগ করে বলেন, ছাত্রী স্কুলে যাওয়া-আসার সময় কাওসার আহমেদ (২৫) নামের একটি ছেলে তাকে উত্ত্যক্ত করত। ছাত্রীকে কাওসার তুলে নিয়ে যাওয়ারও হুমকি দিয়েছিলেন।

ছাত্রীর বাবা আরও অভিযোগ করে বলেন, গত রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে মেয়েটি তাদের বাড়ির পাশে চাচার বাড়ি যাচ্ছিল। এ সময় আগে থেকেই ওত পেতে থাকা কাওসার ও তাঁর সহযোগীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মেয়েটিকে জোরপূর্বক মোটরসাইকেলে ওঠান। মেয়েটির আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসতে দেখে কাউছার তাকে নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় ওই দিনই ছাত্রীর বাবা মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। গতকাল সোমবার পুলিশ এই অভিযোগ মামলা হিসেবে নেয়।

ছাত্রীর বাবার অভিযোগ, মামলা তুলে নিতে কাওসার এবং তাঁর সহযোগীরা অজ্ঞাত স্থান থেকে তাঁকে (বাবাকে) হুমকি দিত। মামলা তুলে না নিলে ছাত্রীর ছোট বোন চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীকেও তুলে নেওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে তাঁর বাবা অভিযোগ করেন। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হকের ভাষ্য, মামলার বিষয়ে পুলিশের কোনো গাফিলতি নেই। মেয়েটিকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করে যাচ্ছে।

বিডিপ্রেস/মিঠু

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

স্কুলছাত্রীকে অপহরণ, মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি!


স্কুলছাত্রীকে অপহরণ, মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি!

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রীর বাবা অভিযোগ করে বলেন, ছাত্রী স্কুলে যাওয়া-আসার সময় কাওসার আহমেদ (২৫) নামের একটি ছেলে তাকে উত্ত্যক্ত করত। ছাত্রীকে কাওসার তুলে নিয়ে যাওয়ারও হুমকি দিয়েছিলেন।

ছাত্রীর বাবা আরও অভিযোগ করে বলেন, গত রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে মেয়েটি তাদের বাড়ির পাশে চাচার বাড়ি যাচ্ছিল। এ সময় আগে থেকেই ওত পেতে থাকা কাওসার ও তাঁর সহযোগীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মেয়েটিকে জোরপূর্বক মোটরসাইকেলে ওঠান। মেয়েটির আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসতে দেখে কাউছার তাকে নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় ওই দিনই ছাত্রীর বাবা মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। গতকাল সোমবার পুলিশ এই অভিযোগ মামলা হিসেবে নেয়।

ছাত্রীর বাবার অভিযোগ, মামলা তুলে নিতে কাওসার এবং তাঁর সহযোগীরা অজ্ঞাত স্থান থেকে তাঁকে (বাবাকে) হুমকি দিত। মামলা তুলে না নিলে ছাত্রীর ছোট বোন চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীকেও তুলে নেওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে তাঁর বাবা অভিযোগ করেন। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হকের ভাষ্য, মামলার বিষয়ে পুলিশের কোনো গাফিলতি নেই। মেয়েটিকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করে যাচ্ছে।

বিডিপ্রেস/মিঠু