BDpress

দাঁত সুস্থ ও সুন্দর রাখতে করণীয়

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
দাঁত সুস্থ ও সুন্দর রাখতে করণীয়
সুন্দর হাসি দিয়ে বিশ্ব জয় করা যায়-এমন একটি কথা প্রচলিত আছে। আসলেই তাই। হাসি দিয়ে মন ও বিশ্ব জয় সম্ভব। তবে সুন্দর হাসির জন্য চাই সুস্থ ও উজ্জ্বল চকচকে দাঁত। তা না হলে হাসি দেয়াই যে কষ্টকর হয়ে উঠে।

তাই সুন্দর ও সুস্থ দাঁতের জন্য করণীয় নিয়ে অালোচনা করা হলো :

পুষ্টিকর খাবার : দাঁতের যত্নে খুবই কার্যকর স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিকর খাবার। এক্ষেত্রে সবুজ শাকসবজি বেশি খেতে হবে। উদ্ভিজ্জ খাবারের ওপর বেশি জোর দিতে হবে। মাছ-মাংস পরিমিত হারে খেতে হবে।

নিয়ম মতো খান: ঘনঘন খাবার খাওয়া দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। ঘনঘন খেলে দাঁতের ফাঁকে খাবার আটকে যায়।

এসব দাঁতের জন্য খুবই ক্ষতিকর। খাওয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন খাদ্যে শর্করার উপাদান কম থাকে। কারণ শর্করা মাড়ি ও দাঁতের কূপের  ক্ষতি করে।

শর্করা জাতীয় খাদ্য পরিহার করুন: দাঁতের যত্নে সবসময় সীমিত হারে শর্করা ও সোডা জাতীয় খাবার খাওয়া উচিৎ। আর একেবারে যদি লোভ সামলাতে না পারেন তাহলে তা খাওয়ার পরই ব্রাশ করুন। তবে এ সুযোগটা সব জায়গায় হয় না। তাই পারতপক্ষে একে এড়িয়ে চলাই উত্তম।

শক্ত ও আঠালো খাবার পরিহার করুন:  সবসময় শক্ত ও আঠালো খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। বিশেষ করে ক্যান্ডি, গাম, বরফ, পপকর্ন, পিজ্জা ক্রস্টস ও চিনাবাদাম না খাওয়ায় ভালো। কারণ এগুলো দাঁত কূপের সঙ্গে মাড়িরও ক্ষতি করে।
বিডিপ্রেস/আলী


এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

দাঁত সুস্থ ও সুন্দর রাখতে করণীয়


দাঁত সুস্থ ও সুন্দর রাখতে করণীয়

তাই সুন্দর ও সুস্থ দাঁতের জন্য করণীয় নিয়ে অালোচনা করা হলো :

পুষ্টিকর খাবার : দাঁতের যত্নে খুবই কার্যকর স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিকর খাবার। এক্ষেত্রে সবুজ শাকসবজি বেশি খেতে হবে। উদ্ভিজ্জ খাবারের ওপর বেশি জোর দিতে হবে। মাছ-মাংস পরিমিত হারে খেতে হবে।

নিয়ম মতো খান: ঘনঘন খাবার খাওয়া দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। ঘনঘন খেলে দাঁতের ফাঁকে খাবার আটকে যায়।

এসব দাঁতের জন্য খুবই ক্ষতিকর। খাওয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন খাদ্যে শর্করার উপাদান কম থাকে। কারণ শর্করা মাড়ি ও দাঁতের কূপের  ক্ষতি করে।

শর্করা জাতীয় খাদ্য পরিহার করুন: দাঁতের যত্নে সবসময় সীমিত হারে শর্করা ও সোডা জাতীয় খাবার খাওয়া উচিৎ। আর একেবারে যদি লোভ সামলাতে না পারেন তাহলে তা খাওয়ার পরই ব্রাশ করুন। তবে এ সুযোগটা সব জায়গায় হয় না। তাই পারতপক্ষে একে এড়িয়ে চলাই উত্তম।

শক্ত ও আঠালো খাবার পরিহার করুন:  সবসময় শক্ত ও আঠালো খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। বিশেষ করে ক্যান্ডি, গাম, বরফ, পপকর্ন, পিজ্জা ক্রস্টস ও চিনাবাদাম না খাওয়ায় ভালো। কারণ এগুলো দাঁত কূপের সঙ্গে মাড়িরও ক্ষতি করে।
বিডিপ্রেস/আলী