BDpress

ভাল ঘুমের জন্য খাবার

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
ভাল ঘুমের জন্য খাবার
শরীর সুস্থ রাখতে রাতে ভাল ঘুম হওয়াটা সবার জন্য জরুরি। ঘুম ভাল হলে নানা ধরনের অসুখ-বিসুখে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমে যাবে, মতিষ্ক সুস্থ থাকবে, হজমশক্তি বাড়বে এবং শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে। একারণে বিশেষজ্ঞরা প্রতিদিন অন্ততপক্ষে ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমের পরামর্শ দেন।

অনেকেরই অনিদ্রা সমস্যা আছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা শুয়ে থাকলেও ঘুম আসে না। সারারাত ছটফট করেন। যাদের রাতে ভাল ঘুম হয় না তারা ভাল ঘুমের জন্য খাদ্যতালিকায় কিছুটা পরিবর্তন আনতে পারেন।

রাতে প্রোটিনসমৃদ্ধ এমন সব খাবার খান যাতে প্রচুর পরিমান এমাইনো এসিড থাকে। এজন্য রাতে মুরগীর মাংস, দুধ ,দইজাতীয় খাবার খেতে পারেন। সাদা ভাত কিংবা আলু খেতে পারেন। খাওয়ার পর চারটা বাদাম খান।কারণ বাদাম এবং বীজ রাতের ঘুমের জন্য উপকারী।  গবেষণায় দেখা গেছে, কলা  ভাল ঘুমের সহায়ক। এতে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম আছে যা শরীরের মাংসপেশি শিথিল হতে সাহায্য করে। এজন্য ঘুমও ভাল হয়। এক চামচ মধু মতিষ্কের জন্য দারুন উপকারী।এটাও ভাল ঘুমে কার্যকর ভূমিকা রাখে। রাতে অ্যালকোহল, পনির, ঝাল খাবার, ভারী খাবার পরিহার করা উচিত। আর দুপুরের খাবারের পর থেকে ক্যাফেইন জাতীয় খাবার থেকে দূরে থাকুন। ঘুমানোর অনন্তত তিন ঘণ্টা আগে রাতের খাবার শেষ করে ফেরুন। এছাড়া ভাল ঘুম এবং মানসিক চাপ কমানোর জন্য দিনে ব্যায়াম করাটাও জরুরি।

বিডিপ্রেস/মিঠু

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ভাল ঘুমের জন্য খাবার


ভাল ঘুমের জন্য খাবার

অনেকেরই অনিদ্রা সমস্যা আছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা শুয়ে থাকলেও ঘুম আসে না। সারারাত ছটফট করেন। যাদের রাতে ভাল ঘুম হয় না তারা ভাল ঘুমের জন্য খাদ্যতালিকায় কিছুটা পরিবর্তন আনতে পারেন।

রাতে প্রোটিনসমৃদ্ধ এমন সব খাবার খান যাতে প্রচুর পরিমান এমাইনো এসিড থাকে। এজন্য রাতে মুরগীর মাংস, দুধ ,দইজাতীয় খাবার খেতে পারেন। সাদা ভাত কিংবা আলু খেতে পারেন। খাওয়ার পর চারটা বাদাম খান।কারণ বাদাম এবং বীজ রাতের ঘুমের জন্য উপকারী।  গবেষণায় দেখা গেছে, কলা  ভাল ঘুমের সহায়ক। এতে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম আছে যা শরীরের মাংসপেশি শিথিল হতে সাহায্য করে। এজন্য ঘুমও ভাল হয়। এক চামচ মধু মতিষ্কের জন্য দারুন উপকারী।এটাও ভাল ঘুমে কার্যকর ভূমিকা রাখে। রাতে অ্যালকোহল, পনির, ঝাল খাবার, ভারী খাবার পরিহার করা উচিত। আর দুপুরের খাবারের পর থেকে ক্যাফেইন জাতীয় খাবার থেকে দূরে থাকুন। ঘুমানোর অনন্তত তিন ঘণ্টা আগে রাতের খাবার শেষ করে ফেরুন। এছাড়া ভাল ঘুম এবং মানসিক চাপ কমানোর জন্য দিনে ব্যায়াম করাটাও জরুরি।

বিডিপ্রেস/মিঠু

স্পটলাইট