BDpress

যদি অনস্ক্রিনে না থাকতাম, থাপ্পড় মারতাম: ওমর সানী

বিনোদন প্রতিবেদক

অ+ অ-
যদি অনস্ক্রিনে না থাকতাম, থাপ্পড় মারতাম: ওমর সানী
তারকাদের জীবনের নানা গোপন তথ্য ফাঁস করে এরইমধ্যে আলোচিত হয়ে উঠেছে রম্য ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘সেন্স অব হিউমার’। সেই ধারাবাহিকতায় অনুষ্ঠানটির সঞ্চালক শাহরিয়ার নাজিম জয়ও আলোচনা ও সমালোচনায় পঞ্চমুখ। এই অনুষ্ঠানে এসে জয়ের প্রশ্নজালে আটকে অনেক তারকাই ‘বিব্রত’ হয়েছেন। এই অনুষ্ঠানের সূত্র ধরে অভিনেতা ওমর সানী জয়কে ‘পাকনা’ বলে সম্বোধন করেন ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে।

অভিনেতা ওমর সানীর স্ট্যাটাসকে আমূলে না নিয়ে জয় বলেন, ‘সানী ভাই এরমধ্যে দু-বার আমার এই অনুষ্ঠানে এসেছেন। তিনি ছাড়া আর কোনো তারকা এখনও আমার অনুষ্ঠানে দ্বিতীয়বার আসার সুযোগ পাননি। দু-বারই তিনি অনুষ্ঠানে এসে আমার অনুষ্ঠান পরিকল্পনা-সঞ্চালনার ভূয়সী প্রশংসা করেন। বলেন, ইউ আর দ্য বেস্ট। কিন্তু হঠাৎ করে হয়তো তিনি কারও মাধ্যমে প্রভাবিত হয়ে আমাকে কথাগুলো বলেছেন। তাই এ নিয়ে আমি খুব একটা ভাবছি না।’

তবে ওমর সানী বলেন, ‘এই পৃথিবীতে আমি কারও কথায় চলি না। ১৯৮৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত আমার প্রোফাইল ঘাটলে আপনি দেখবেন আমি কারও নামে কোনোদিন কোনো কটু কথা বলিনি। এই প্রথম বললাম। আমি কোনোদিন কাউকে ছোট করে বলতে শিখিনি।’

ওমর সানী আরও বলেন, ‘আমি তার এই অনুষ্ঠানে প্রথম যাই শিল্পী সমিতির নির্বাচন ও মিশা সওদাগরের বিষয়ে কথা বলতে। তখন মনে হয়েছিল এটা একটা স্মার্ট অনুষ্ঠান। কিন্তু যখন সে মৌসুমীকে নিয়ে বললো, আপনি যদি বিয়ে না করতেন তাহলে আমি বিয়ে করতাম। তখন থাপ্পড় মারতাম, যদি অনস্ক্রিনে না থাকতাম। আরেক দিন সে তার অনুষ্ঠানে নিয়ে গিয়ে শাবনূরকে বললো, আপনার ছেলেটা তো দেখতে রিয়াজের মতো। সে এটা কিভাবে বলতে পারলো। যার সারাজীবনে কোনো স্ক্যান্ডাল নেই তাকে নিয়ে কত বড় কথা! সে অলরেডি আরেকজনের সংসার করছে। অনেক তারকার সাথেই সে পাকনামী করেছে। এমনকি শামীম ওসমানের মতো রাজনীতিবিদের সাথেও। সে যেভাবে অনুষ্ঠানে বিয়ের প্রস্তাব দেয়, জয় কি আসলে বিবাহিত?’ ওমর সানীকে উদ্দেশ্য করে জয় আরও বলেন, ‘আমি তাকে ওপেন ইনভাইট করছি, প্রয়োজনে আপনি আবারও আমার অনুষ্ঠানে আসুন। আমার সম্পর্কে যা যা বলার সেটা সরাসরি বলুন। কিছু মনে করবো না। কিন্তু এভাবে ফেসবুকে আর নয়, প্লিজ।’

বিডিপ্রেস/মিঠু

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

যদি অনস্ক্রিনে না থাকতাম, থাপ্পড় মারতাম: ওমর সানী


যদি অনস্ক্রিনে না থাকতাম, থাপ্পড় মারতাম: ওমর সানী

অভিনেতা ওমর সানীর স্ট্যাটাসকে আমূলে না নিয়ে জয় বলেন, ‘সানী ভাই এরমধ্যে দু-বার আমার এই অনুষ্ঠানে এসেছেন। তিনি ছাড়া আর কোনো তারকা এখনও আমার অনুষ্ঠানে দ্বিতীয়বার আসার সুযোগ পাননি। দু-বারই তিনি অনুষ্ঠানে এসে আমার অনুষ্ঠান পরিকল্পনা-সঞ্চালনার ভূয়সী প্রশংসা করেন। বলেন, ইউ আর দ্য বেস্ট। কিন্তু হঠাৎ করে হয়তো তিনি কারও মাধ্যমে প্রভাবিত হয়ে আমাকে কথাগুলো বলেছেন। তাই এ নিয়ে আমি খুব একটা ভাবছি না।’

তবে ওমর সানী বলেন, ‘এই পৃথিবীতে আমি কারও কথায় চলি না। ১৯৮৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত আমার প্রোফাইল ঘাটলে আপনি দেখবেন আমি কারও নামে কোনোদিন কোনো কটু কথা বলিনি। এই প্রথম বললাম। আমি কোনোদিন কাউকে ছোট করে বলতে শিখিনি।’

ওমর সানী আরও বলেন, ‘আমি তার এই অনুষ্ঠানে প্রথম যাই শিল্পী সমিতির নির্বাচন ও মিশা সওদাগরের বিষয়ে কথা বলতে। তখন মনে হয়েছিল এটা একটা স্মার্ট অনুষ্ঠান। কিন্তু যখন সে মৌসুমীকে নিয়ে বললো, আপনি যদি বিয়ে না করতেন তাহলে আমি বিয়ে করতাম। তখন থাপ্পড় মারতাম, যদি অনস্ক্রিনে না থাকতাম। আরেক দিন সে তার অনুষ্ঠানে নিয়ে গিয়ে শাবনূরকে বললো, আপনার ছেলেটা তো দেখতে রিয়াজের মতো। সে এটা কিভাবে বলতে পারলো। যার সারাজীবনে কোনো স্ক্যান্ডাল নেই তাকে নিয়ে কত বড় কথা! সে অলরেডি আরেকজনের সংসার করছে। অনেক তারকার সাথেই সে পাকনামী করেছে। এমনকি শামীম ওসমানের মতো রাজনীতিবিদের সাথেও। সে যেভাবে অনুষ্ঠানে বিয়ের প্রস্তাব দেয়, জয় কি আসলে বিবাহিত?’ ওমর সানীকে উদ্দেশ্য করে জয় আরও বলেন, ‘আমি তাকে ওপেন ইনভাইট করছি, প্রয়োজনে আপনি আবারও আমার অনুষ্ঠানে আসুন। আমার সম্পর্কে যা যা বলার সেটা সরাসরি বলুন। কিছু মনে করবো না। কিন্তু এভাবে ফেসবুকে আর নয়, প্লিজ।’

বিডিপ্রেস/মিঠু

স্পটলাইট