BDpress

১২টি মডেলের ইলেকট্রিক গাড়ি আনছে BMW

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
১২টি মডেলের ইলেকট্রিক গাড়ি আনছে BMW
গাড়ির স্বাদ বদলাচ্ছে বিএমডাব্লিউ। আগামী ২০১৯ সালের মধ্যে বৈদ্যুতিক এবং হাইব্রিড গাড়ির বিক্রি বাড়াচ্ছে বিশ্বের অন্যতম বড় গাড়ি-নির্মাণ সংস্থা। সংস্থার দাবি, ২০১৮ সাল থেকেই বৈদ্যুতিক গাড়ি বিক্রির উপর জোর দেওয়া হবে। আর ২০১৯ সাল থেকে সেটিকে অন্য-মাত্রায় নিয়ে যাওয়া হবে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিএমডাব্লিউ ২০১৩ সালে তাদের আই-৩ বৈদ্যুতিক গাড়ি আনলেও এর বিক্রি অপেক্ষাকৃত কম ছিল। এর ফলে পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির উপর জোর দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছিল সংস্থাটি। কিন্তু এই সিদ্ধান্তহীনতার অবস্থা শেষ হয় চলতি বছর সেপ্টেম্বরে। সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা বড় পরিসরে বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে যাবে। ২০২৫ সালের মধ্যে ১২টি পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ির মডেল আনার লক্ষ্য নেয় তারা।

বিএমডাব্লিউ'র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা এই বছর বিশ্বব্যাপী এক লাখ পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ি বিক্রির লক্ষ্য পূরণ করতে পেরেছে। ক্রুগার বলেন, পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণ খাতে যেতে আর্থিক সহায়তা পাওয়ার জন্য দহন ইঞ্জিনচালিত গাড়ি তৈরি ও বিক্রিও অব্যাহত থাকবে। এক্ষেত্রে ফোকসভাগেন-এর দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, “ডিজেল কেনা গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখে চলা একদম অযৌক্তিক।” সময় বদলাচ্ছে। আর তাই বিএমডাব্লিউ প্রধানের মতে, বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির উপরেই জোর দেওয়া উচিৎ।
বিডিপ্রেস/আলী



এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

১২টি মডেলের ইলেকট্রিক গাড়ি আনছে BMW


১২টি মডেলের ইলেকট্রিক গাড়ি আনছে BMW

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিএমডাব্লিউ ২০১৩ সালে তাদের আই-৩ বৈদ্যুতিক গাড়ি আনলেও এর বিক্রি অপেক্ষাকৃত কম ছিল। এর ফলে পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির উপর জোর দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছিল সংস্থাটি। কিন্তু এই সিদ্ধান্তহীনতার অবস্থা শেষ হয় চলতি বছর সেপ্টেম্বরে। সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা বড় পরিসরে বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে যাবে। ২০২৫ সালের মধ্যে ১২টি পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ির মডেল আনার লক্ষ্য নেয় তারা।

বিএমডাব্লিউ'র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা এই বছর বিশ্বব্যাপী এক লাখ পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ি বিক্রির লক্ষ্য পূরণ করতে পেরেছে। ক্রুগার বলেন, পুরোপুরি বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণ খাতে যেতে আর্থিক সহায়তা পাওয়ার জন্য দহন ইঞ্জিনচালিত গাড়ি তৈরি ও বিক্রিও অব্যাহত থাকবে। এক্ষেত্রে ফোকসভাগেন-এর দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, “ডিজেল কেনা গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখে চলা একদম অযৌক্তিক।” সময় বদলাচ্ছে। আর তাই বিএমডাব্লিউ প্রধানের মতে, বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির উপরেই জোর দেওয়া উচিৎ।
বিডিপ্রেস/আলী