BDpress

মেসির কারণে প্রতিশোধ নিতে পারেনি লিভারপুল!

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
মেসির কারণে প্রতিশোধ নিতে পারেনি লিভারপুল!
ফিলিপে কুতিনহোকে বিক্রি করতে রাজি ছিল না লিভারপুল। নিজেদের স্বার্থ হাসিল করতে বার্সেলোনা বেছে নেয় দলবদলের ‘কালো পথ’। তলেতলে খেলোয়াড়কে উসকানি দিয়ে বিদ্রোহী করে তোলে ক্লাবের বিপক্ষে।

বার্সার বিশাল অঙ্কের টাকার টোপ আর উসকানি পেয়ে কুতিনহো এতোটাই মরিয়া হয়ে উঠেন যে, লিভারপুলও এক পর্যায়ে বুঝে ফেলে, তাকে ধরে রাখা যাবে না। লিভারপুল তাই পরিকল্পনা আঁটে বার্সেলোনার ‘অন্যায়ে’র প্রতিশোধ নেওয়ার। হাত বাড়ায় বার্সেলোনার স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সের্গিও রবার্তোর দিকে।

খেলোয়াড়ের বিনিময়ে খেলোয়াড় হারানোর বদলা নেওয়ার পরিকল্পনা আর কি! কিন্তু লিভারপুলের সেই প্রতিশোধ পরিকল্পনা সফল হয়নি একজনের কারণে। তিনি লিওনেল মেসি। স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর অন্তত সেরকমই।

কুতিনহোকে হারানোর ক্ষতে প্রলেপ দিতে লিভারপুল নাকি দুইভাবে চেষ্টা করেছে সের্গিও রবার্তোকে দলে টানার জন্য। এক, নগদ টাকা দিয়েই কিনতে চেয়েছিল। দুই. কুতিনহোর সঙ্গে বিনিময় চুক্তির অংশ হিসেবেও রবার্তোকে নাকি চেয়েছিল ইংলিশ ক্লাবটি। বিনিময় চুক্তির প্রস্তাবে বার্সেলোনাও নাকি সুর একটু নরম করে ফেলেছিল। কিন্তু মেসি বেকে বসে বার্সা কর্তাদের সেই নরম সুর ইস্পাতশক্ত বানিয়ে ফেলেন!

মেসি নাকি ক্লাব কর্তাদের সরাসরিই জানিয়ে দেন রবার্তোকে বিক্রি করা যাবে না। ক্লাব বার্সেলোনায় মেসির কথার দাম কত, সেই প্রমাণ আগেও অনেকবার মিলেছে। মেসি যাকে শুরুর একাদশে খেলাতে চান, বার্সেলোনার কোচরাও বাধ্য ছেলের মতো তা মেনে নেন। শুধু কোচরাই নন, বার্সেলোনার কর্তাদের কাছেও মেসির কথা বা চাওয়ার মূল্য অনেক।

গত আগস্টে পড়তি ফর্মের পওলিনহোর সঙ্গে বার্সেলোনা চুক্তি করে স্রেফ মেসির অনুরোধ। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার পওলিনহো নিজেই বলেছেন, মেসিই তাকে অনুপ্রাণিত করেন বার্সায় যোগ দিতে। দলেল প্রানভোমড়া, সেই মেসি যখন বলে বসেন, রবার্তোকে বিক্রি করা যাবে না, বার্সা কর্তারাও নাকি বাধ্য ছেলের মতো ওই পথ থেকে সরে আসে।

মেসির কথায় ২৫ বছর বয়সী স্প্যানিশ মিডফিল্ডারকে ধরে রেখে বার্সার কতটা লাভ হয়েছে, বলবে সময়। তবে মেসির কারণেই লিভারপুল নেভাতে পারেনি প্রতিশোধের আগুন। ক্লাব বার্সেলোনার পাশাপাশি মেসির উপরও নিশ্চয় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ লিভারপুল।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

মেসির কারণে প্রতিশোধ নিতে পারেনি লিভারপুল!


মেসির কারণে প্রতিশোধ নিতে পারেনি লিভারপুল!

বার্সার বিশাল অঙ্কের টাকার টোপ আর উসকানি পেয়ে কুতিনহো এতোটাই মরিয়া হয়ে উঠেন যে, লিভারপুলও এক পর্যায়ে বুঝে ফেলে, তাকে ধরে রাখা যাবে না। লিভারপুল তাই পরিকল্পনা আঁটে বার্সেলোনার ‘অন্যায়ে’র প্রতিশোধ নেওয়ার। হাত বাড়ায় বার্সেলোনার স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সের্গিও রবার্তোর দিকে।

খেলোয়াড়ের বিনিময়ে খেলোয়াড় হারানোর বদলা নেওয়ার পরিকল্পনা আর কি! কিন্তু লিভারপুলের সেই প্রতিশোধ পরিকল্পনা সফল হয়নি একজনের কারণে। তিনি লিওনেল মেসি। স্প্যানিশ গণমাধ্যমের খবর অন্তত সেরকমই।

কুতিনহোকে হারানোর ক্ষতে প্রলেপ দিতে লিভারপুল নাকি দুইভাবে চেষ্টা করেছে সের্গিও রবার্তোকে দলে টানার জন্য। এক, নগদ টাকা দিয়েই কিনতে চেয়েছিল। দুই. কুতিনহোর সঙ্গে বিনিময় চুক্তির অংশ হিসেবেও রবার্তোকে নাকি চেয়েছিল ইংলিশ ক্লাবটি। বিনিময় চুক্তির প্রস্তাবে বার্সেলোনাও নাকি সুর একটু নরম করে ফেলেছিল। কিন্তু মেসি বেকে বসে বার্সা কর্তাদের সেই নরম সুর ইস্পাতশক্ত বানিয়ে ফেলেন!

মেসি নাকি ক্লাব কর্তাদের সরাসরিই জানিয়ে দেন রবার্তোকে বিক্রি করা যাবে না। ক্লাব বার্সেলোনায় মেসির কথার দাম কত, সেই প্রমাণ আগেও অনেকবার মিলেছে। মেসি যাকে শুরুর একাদশে খেলাতে চান, বার্সেলোনার কোচরাও বাধ্য ছেলের মতো তা মেনে নেন। শুধু কোচরাই নন, বার্সেলোনার কর্তাদের কাছেও মেসির কথা বা চাওয়ার মূল্য অনেক।

গত আগস্টে পড়তি ফর্মের পওলিনহোর সঙ্গে বার্সেলোনা চুক্তি করে স্রেফ মেসির অনুরোধ। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার পওলিনহো নিজেই বলেছেন, মেসিই তাকে অনুপ্রাণিত করেন বার্সায় যোগ দিতে। দলেল প্রানভোমড়া, সেই মেসি যখন বলে বসেন, রবার্তোকে বিক্রি করা যাবে না, বার্সা কর্তারাও নাকি বাধ্য ছেলের মতো ওই পথ থেকে সরে আসে।

মেসির কথায় ২৫ বছর বয়সী স্প্যানিশ মিডফিল্ডারকে ধরে রেখে বার্সার কতটা লাভ হয়েছে, বলবে সময়। তবে মেসির কারণেই লিভারপুল নেভাতে পারেনি প্রতিশোধের আগুন। ক্লাব বার্সেলোনার পাশাপাশি মেসির উপরও নিশ্চয় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ লিভারপুল।

বিডিপ্রেস/আরজে