BDpress

ইজতেমায় ৪ হাজার বিদেশির অংশগ্রহণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
ইজতেমায় ৪ হাজার বিদেশির অংশগ্রহণ
দেশি-বিদেশি মুসল্লিদের অংশগ্রহণে শুক্রবার বাদ ফজর থেকে টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে শুরু হয়েছে ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। ইজতেমার প্রথম দিনেই অংশ নিয়েছেন ৪ হাজার বিদেশি মুসল্লি।

গাজীপুর জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, তাবলীগ জামাতের তিনদিন ব্যাপী বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে প্রথম দিন শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ৭৯টি দেশের ৩ হাজার ৯১৯ জন মুসল্লি ইজতেমা মাঠে পৌঁছেছেন। ইজতেমার পরিবেশ রক্ষায় প্রতিদিন ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই পর্বে পরিচালিত হবে।

বাদ ফজর জর্ডানের মাওলানা শেখ ওমর খতিবের বয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার মূল কাজ শুরু হয়। তার বয়ান বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের মুরব্বি আব্দুল মতিন। প্রথম পর্বে দেশের ১৪ জেলার মুসল্লিদের পাশাপাশি ভারত, পাকিস্তান, ইরান, ইরাক, জর্ডানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন।

বিদেশি মুসল্লিদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে শুক্রবার দুপুরে গাজীপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ বলেন, বিদেশি মুসল্লিদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তাদের জন্য রয়েছে- আলাদা খিত্তার ব্যবস্থা। সিসি ক্যামেরায় বিদেশিদের জন্য ৪টি খিত্তা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। কোনো ধরনের টোকাই, হকারদের ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আজ জুম্মা। যে কারণে তুলনামূলকভাবে ভিড়। বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মুসল্লিদের অনেকে মূল প্যান্ডেলের নিচে বসেই জুমার নামাজ আদায় করার সুযোগ পাবেন। সে ধরনের যথেষ্ট ব্যবস্থা এবার রয়েছে। মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে অতিরিক্ত এসপির তত্বাবধানে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা মনিটরিং করা হচ্ছে।

১৪ জানুয়ারি রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। ৪ দিন বিরতির পর ১৯ জানুয়ারি শুরু হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ইজতেমায় ৪ হাজার বিদেশির অংশগ্রহণ


ইজতেমায় ৪ হাজার বিদেশির অংশগ্রহণ

গাজীপুর জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, তাবলীগ জামাতের তিনদিন ব্যাপী বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে প্রথম দিন শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ৭৯টি দেশের ৩ হাজার ৯১৯ জন মুসল্লি ইজতেমা মাঠে পৌঁছেছেন। ইজতেমার পরিবেশ রক্ষায় প্রতিদিন ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই পর্বে পরিচালিত হবে।

বাদ ফজর জর্ডানের মাওলানা শেখ ওমর খতিবের বয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার মূল কাজ শুরু হয়। তার বয়ান বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের মুরব্বি আব্দুল মতিন। প্রথম পর্বে দেশের ১৪ জেলার মুসল্লিদের পাশাপাশি ভারত, পাকিস্তান, ইরান, ইরাক, জর্ডানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন।

বিদেশি মুসল্লিদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে শুক্রবার দুপুরে গাজীপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ বলেন, বিদেশি মুসল্লিদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তাদের জন্য রয়েছে- আলাদা খিত্তার ব্যবস্থা। সিসি ক্যামেরায় বিদেশিদের জন্য ৪টি খিত্তা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। কোনো ধরনের টোকাই, হকারদের ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আজ জুম্মা। যে কারণে তুলনামূলকভাবে ভিড়। বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মুসল্লিদের অনেকে মূল প্যান্ডেলের নিচে বসেই জুমার নামাজ আদায় করার সুযোগ পাবেন। সে ধরনের যথেষ্ট ব্যবস্থা এবার রয়েছে। মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে অতিরিক্ত এসপির তত্বাবধানে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা মনিটরিং করা হচ্ছে।

১৪ জানুয়ারি রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। ৪ দিন বিরতির পর ১৯ জানুয়ারি শুরু হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব।

বিডিপ্রেস/আরজে