BDpress

অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে একসঙ্গে ট্রাম্প-কিম

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে একসঙ্গে ট্রাম্প-কিম
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের মধ্যে যে 'সাপে-নেউলে' সম্পর্ক, সে কথা সবারই জানা। কিছুদিন আগে ট্রাম্প কিম উনকে উন্মাদ বলেছিলেন। এ কথা শুনে প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্পকে পাগল বলে আখ্যায়িত করেন কিম জং উন।

তবে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠানরত শীতকালীন অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে হঠাৎ হাজির হলেন ট্রাম্প ও কিম। এই দুই নেতাকে একসঙ্গে অলিম্পিক আসরে দেখে উপস্থিত দর্শকরা তো অবাক। ক্যামেরা হাতে সেখানে তখন উপস্থিত শত শত সাংবাদিকরাও অবাক। প্রাথমিক বিস্ময়ের ধাক্কা সামলে সচল হলো সবার হাতে থাকা ক্যামেরা।

আসলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আর উত্তর কোরীয় প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের অবিকল চেহারা ও আকৃতির মানুষ। চেহারা, গায়ের রঙ, উচ্চতা, পোশাক-আশাক, চলনভঙ্গি আর চাহনি সবই ট্রাম্প আর কিমের হুবহু অনুরূপ। ইংরেজিতে যাকে বলে লুক অ্যালাইক।

পরে অবশ্য ‘ট্রাম-কিম’ দুজনই গিয়ে বসলেন দর্শকসারিতে। কারণ আগেভাগেই টিকেট কেটে নিয়েছিলেন তারা। তবে তাদের সঙ্গে সেলফি তুলতে ভুল করেননি উপস্থিত দর্শকরা।

সূত্রঃ দ্যা লস এঞ্জেলস টাইমস।
 বিডিপ্রেস/আলী



এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে একসঙ্গে ট্রাম্প-কিম


অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে একসঙ্গে ট্রাম্প-কিম

তবে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠানরত শীতকালীন অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে হঠাৎ হাজির হলেন ট্রাম্প ও কিম। এই দুই নেতাকে একসঙ্গে অলিম্পিক আসরে দেখে উপস্থিত দর্শকরা তো অবাক। ক্যামেরা হাতে সেখানে তখন উপস্থিত শত শত সাংবাদিকরাও অবাক। প্রাথমিক বিস্ময়ের ধাক্কা সামলে সচল হলো সবার হাতে থাকা ক্যামেরা।

আসলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আর উত্তর কোরীয় প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের অবিকল চেহারা ও আকৃতির মানুষ। চেহারা, গায়ের রঙ, উচ্চতা, পোশাক-আশাক, চলনভঙ্গি আর চাহনি সবই ট্রাম্প আর কিমের হুবহু অনুরূপ। ইংরেজিতে যাকে বলে লুক অ্যালাইক।

পরে অবশ্য ‘ট্রাম-কিম’ দুজনই গিয়ে বসলেন দর্শকসারিতে। কারণ আগেভাগেই টিকেট কেটে নিয়েছিলেন তারা। তবে তাদের সঙ্গে সেলফি তুলতে ভুল করেননি উপস্থিত দর্শকরা।

সূত্রঃ দ্যা লস এঞ্জেলস টাইমস।
 বিডিপ্রেস/আলী