BDpress

ফ্যানের সাথে ঝুলে ইঞ্জিনিয়ারের আত্মহত্যা

জেলা প্রতিবেদক

অ+ অ-
ফ্যানের সাথে ঝুলে ইঞ্জিনিয়ারের আত্মহত্যা
সিলেট নগরীর মোগলাবাজার থানার কদমতলী এলাকায় খুরশেদ আলম তালুকদার (৫৫) নামে এক ব্যক্তি গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে কাজের বোয়া জাহানারা বেগম এসে অনেক ডাকাডাকি করে সাড়াশব্দ না পেয়ে জানালার দিয়ে দেখতে পান খুরশেদ আলম ফ্যানের সাথে ঝুলে আছেন। রাত ১২টার পর যে কোনও সময় তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারনা করছে পুলিশ।
মোগলাবাজার থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, আজ সকাল ৭ টার দিকে কদমতলী খাঁনবাড়ি রাস্তার মুখে জুনেদ আহমদের বাড়ির নিচ তলার একটি রুমের ভেতরে গলায় রশি পেচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিহতের কাজের বোয়া জানান, সকাল ৭টার দিকে এসে দেখি দরজা ভিতর দিকে লাগানো। অনেক ডাকাডাকি করার পরও কোনো সাড়াশব্দ না পাওয়ায় জানালা দিয়ে দেখতে পাই খুরেশদ আলম ফ্যানের সাথে ঝুলে আছেন। পরে বাসার মালিক জুনেদ আহমদ মোগলাবাজার থানা পুলিশ কে খরব দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
নিহত খুরশেদ আলম তালুকদারের বাবার নাম আব্দুর রহিম তালুকদার। তিনি টাইঙ্গাল জেলার ফুলকি ইউনিয়নের বাসাবি থানার দোহার গ্রামের বাসিন্দা।  তিনি সিলেট পল্লিবিদুৎ সমিতি-১ এর ট্রেইলার ইঞ্জিনিয়ার পদে কর্মরত ছিলেন।

বিডিপ্রেস/জিএম

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ফ্যানের সাথে ঝুলে ইঞ্জিনিয়ারের আত্মহত্যা


ফ্যানের সাথে ঝুলে ইঞ্জিনিয়ারের আত্মহত্যা

বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে কাজের বোয়া জাহানারা বেগম এসে অনেক ডাকাডাকি করে সাড়াশব্দ না পেয়ে জানালার দিয়ে দেখতে পান খুরশেদ আলম ফ্যানের সাথে ঝুলে আছেন। রাত ১২টার পর যে কোনও সময় তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারনা করছে পুলিশ।
মোগলাবাজার থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, আজ সকাল ৭ টার দিকে কদমতলী খাঁনবাড়ি রাস্তার মুখে জুনেদ আহমদের বাড়ির নিচ তলার একটি রুমের ভেতরে গলায় রশি পেচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিহতের কাজের বোয়া জানান, সকাল ৭টার দিকে এসে দেখি দরজা ভিতর দিকে লাগানো। অনেক ডাকাডাকি করার পরও কোনো সাড়াশব্দ না পাওয়ায় জানালা দিয়ে দেখতে পাই খুরেশদ আলম ফ্যানের সাথে ঝুলে আছেন। পরে বাসার মালিক জুনেদ আহমদ মোগলাবাজার থানা পুলিশ কে খরব দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
নিহত খুরশেদ আলম তালুকদারের বাবার নাম আব্দুর রহিম তালুকদার। তিনি টাইঙ্গাল জেলার ফুলকি ইউনিয়নের বাসাবি থানার দোহার গ্রামের বাসিন্দা।  তিনি সিলেট পল্লিবিদুৎ সমিতি-১ এর ট্রেইলার ইঞ্জিনিয়ার পদে কর্মরত ছিলেন।

বিডিপ্রেস/জিএম