BDpress

ময়মনসিংহের ত্রিশালে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

জেলা প্রতিবেদক

অ+ অ-
ময়মনসিংহের ত্রিশালে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
ময়মনসিংহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ত্রিশালের সাইনবোর্ড নামকস্থানে মঙ্গলবার দুপুরে একটি পিকআপ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে নার্গিস আক্তার নামে এক নারী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ সময় গুরুতর আহত অবস্থায় তার স্বামী মোয়াজ্জেম হোসেন (৪৫), দুই শিশু সন্তান জুঁই (৮) ও নাবিদুলকে (৬) ত্রিশাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অপরদিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের নান্দাইলের জালুয়া নামকস্থানে ট্রাকচাপায় সোনিয়া আক্তার নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। এ সময় কুলসুম ও শিল্পী নামে আরও দুই শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। হতাহতরা সকলেই নান্দাইল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী।
ত্রিশাল থানার ওসি জাকিউর রহমান জানান, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বড়জোড়া গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেন, তার স্ত্রী ও দুই শিশু সন্তান নিয়ে পিকআপভ্যানে করে বাসার মালামাল নিয়ে ঢাকার গাজীপুরের কোনাবাড়িতে কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। দুপুর ১২টার দিকে পিকআপ ভ্যানটি ত্রিশাল উপজেলার সাইনবোর্ড নামকস্থানে পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডিভাইডারে ধাক্কা লেগে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নার্গিস আক্তার নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। আহত হন তার স্বামী ও দুই সন্তানসহ তিনজন।
নান্দাইল থানার ওসি ইউনুস আলী জানান, নান্দাইল উপজেলার ভাটিসাভার গ্রামের সোনিয়া, কুলসুম ও শিল্পী নামে অষ্টম শ্রেণির তিন শিক্ষার্থী সকাল ১০টার দিকে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। এ সময় বিপরীত দিক থেকে একটি দ্রুতগতির ট্রাক এসে তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সোনিয়া আক্তার মারা যায়। গুরুতর আহত কুলসুম ও শিল্পীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিডিপ্রেস/জিএম

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ময়মনসিংহের ত্রিশালে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২


ময়মনসিংহের ত্রিশালে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

অপরদিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের নান্দাইলের জালুয়া নামকস্থানে ট্রাকচাপায় সোনিয়া আক্তার নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। এ সময় কুলসুম ও শিল্পী নামে আরও দুই শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। হতাহতরা সকলেই নান্দাইল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী।
ত্রিশাল থানার ওসি জাকিউর রহমান জানান, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বড়জোড়া গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেন, তার স্ত্রী ও দুই শিশু সন্তান নিয়ে পিকআপভ্যানে করে বাসার মালামাল নিয়ে ঢাকার গাজীপুরের কোনাবাড়িতে কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। দুপুর ১২টার দিকে পিকআপ ভ্যানটি ত্রিশাল উপজেলার সাইনবোর্ড নামকস্থানে পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডিভাইডারে ধাক্কা লেগে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নার্গিস আক্তার নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। আহত হন তার স্বামী ও দুই সন্তানসহ তিনজন।
নান্দাইল থানার ওসি ইউনুস আলী জানান, নান্দাইল উপজেলার ভাটিসাভার গ্রামের সোনিয়া, কুলসুম ও শিল্পী নামে অষ্টম শ্রেণির তিন শিক্ষার্থী সকাল ১০টার দিকে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। এ সময় বিপরীত দিক থেকে একটি দ্রুতগতির ট্রাক এসে তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সোনিয়া আক্তার মারা যায়। গুরুতর আহত কুলসুম ও শিল্পীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিডিপ্রেস/জিএম