BDpress

অনলাইন বাণিজ্যে ভ্যাট আরোপ স্পষ্ট করলো এনবিআর

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
অনলাইন বাণিজ্যে ভ্যাট আরোপ স্পষ্ট করলো এনবিআর
অনলাইনে ব্যাবসা-বাণিজ্য সংক্রান্ত বাজেট প্রস্তাবনা বিষয়ে অস্পস্টাতা দূর করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ভার্চুয়াল ব্যবসাকে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাটের আওতায় আনার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। কিন্তু কোন কোন ক্ষেত্রে ও কীভাবে এ ভ্যাট আরোপ হবে, তা বাজেট বক্তব্যে পরিষ্কার করে বলেননি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বুধবার পাশ হওয়া অর্থবিলে এ বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যা দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)।

এনবিআরের ব্যাখ্যা অনুযায়ী, এখন থেকে ইলেকট্রনিক নেটওয়ার্ক ব্যবহারের মাধ্যমে ইন্টারনেট বা ওয়েব বা সামাজিক মাধ্যম (যেমন ফেসবুক) বা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম বা এমন মাধ্যম ব্যবহার করে বিজ্ঞাপন, পরিবহন যোগাযোগ স্থাপন (যেমন উবার, পাঠাও), ই-কমার্সভিত্তিক গাড়ি, আসবাবপত্র, এয়ারকন্ডিশন, ফ্রিজার, রেফ্রিজারেটর, টেলিভিশন, ওয়াশিং মেশিন, ক্যামেরা, হোম থিয়েটার, গয়না, বিদেশি ব্র্যান্ডের পোশাক ও জুতা ইত্যাদি পণ্য বা সেবা কেনাবেচা করলে ৫ শতাংশ ভ্যাট দিতে হবে।

তবে টেলিকম অপারেটরদের প্রদত্ত যেকোনো ধরনের মোবাইল ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসের ক্ষেত্রে এ ভ্যাট অন্তর্ভুক্ত হবে না।

অন্যদিকে তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার সংজ্ঞা পরিষ্কার করেছে এনবিআর।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

অনলাইন বাণিজ্যে ভ্যাট আরোপ স্পষ্ট করলো এনবিআর


অনলাইন বাণিজ্যে ভ্যাট আরোপ স্পষ্ট করলো এনবিআর

২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ভার্চুয়াল ব্যবসাকে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাটের আওতায় আনার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। কিন্তু কোন কোন ক্ষেত্রে ও কীভাবে এ ভ্যাট আরোপ হবে, তা বাজেট বক্তব্যে পরিষ্কার করে বলেননি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বুধবার পাশ হওয়া অর্থবিলে এ বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যা দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)।

এনবিআরের ব্যাখ্যা অনুযায়ী, এখন থেকে ইলেকট্রনিক নেটওয়ার্ক ব্যবহারের মাধ্যমে ইন্টারনেট বা ওয়েব বা সামাজিক মাধ্যম (যেমন ফেসবুক) বা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম বা এমন মাধ্যম ব্যবহার করে বিজ্ঞাপন, পরিবহন যোগাযোগ স্থাপন (যেমন উবার, পাঠাও), ই-কমার্সভিত্তিক গাড়ি, আসবাবপত্র, এয়ারকন্ডিশন, ফ্রিজার, রেফ্রিজারেটর, টেলিভিশন, ওয়াশিং মেশিন, ক্যামেরা, হোম থিয়েটার, গয়না, বিদেশি ব্র্যান্ডের পোশাক ও জুতা ইত্যাদি পণ্য বা সেবা কেনাবেচা করলে ৫ শতাংশ ভ্যাট দিতে হবে।

তবে টেলিকম অপারেটরদের প্রদত্ত যেকোনো ধরনের মোবাইল ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসের ক্ষেত্রে এ ভ্যাট অন্তর্ভুক্ত হবে না।

অন্যদিকে তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার সংজ্ঞা পরিষ্কার করেছে এনবিআর।

বিডিপ্রেস/আরজে

স্পটলাইট