BDpress

কুমিল্লায় ডোবা থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

জেলা প্রতিবেদক

অ+ অ-
কুমিল্লায় ডোবা থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর ডোবা থেকে মর্তুজা মিয়া (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে নিহতের বাড়িসংলগ্ন ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মর্তুজা মিয়া (৬৫) উপজেলার বাইশগাঁও ইউনিয়নের কেয়ারী গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার সকালে মর্তুজা মিয়া নিখোঁজ হন। ওই দিন সন্ধ্যায় তার বড় ছেলে প্রবাসী হারুনুর রশিদের স্ত্রী পারভীন বেগম মনোহরগঞ্জ থানায় একটি ডায়েরি করেন।

পরে শনিবার সকালে কেয়ারী-হাসনাবাদ সড়কের পাশে ডোবায় ঘাস কাটতে গিয়ে মর্তুজা মিয়ার লাশ ভেসে উঠতে দেখে স্থানীয় এক যুবক। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

নিহতের পুত্রবধূ পারভীন বেগম বলেন, গত কয়েক দিন ধরে আমি আমার বাবার বাড়িতে আছি। তিন দিন আগে শ্বশুরের কাছ থেকে শুনলাম, সম্পত্তি বণ্টন নিয়ে তার দ্বিতীয় স্ত্রী মারজানা বেগমের সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে।

এ কারণে তিনি বাড়িতে খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর শাশুড়ি মারজানা আমাকে ফোন করে বলেন, সকাল থেকে তিনি (মর্তুজা মিয়া) নিখোঁজ। অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পাওয়ায় আমি সন্ধ্যায় থানায় ডায়েরি করি।

মনোহরগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খাঁন বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

কুমিল্লায় ডোবা থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার


কুমিল্লায় ডোবা থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

নিহত মর্তুজা মিয়া (৬৫) উপজেলার বাইশগাঁও ইউনিয়নের কেয়ারী গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার সকালে মর্তুজা মিয়া নিখোঁজ হন। ওই দিন সন্ধ্যায় তার বড় ছেলে প্রবাসী হারুনুর রশিদের স্ত্রী পারভীন বেগম মনোহরগঞ্জ থানায় একটি ডায়েরি করেন।

পরে শনিবার সকালে কেয়ারী-হাসনাবাদ সড়কের পাশে ডোবায় ঘাস কাটতে গিয়ে মর্তুজা মিয়ার লাশ ভেসে উঠতে দেখে স্থানীয় এক যুবক। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

নিহতের পুত্রবধূ পারভীন বেগম বলেন, গত কয়েক দিন ধরে আমি আমার বাবার বাড়িতে আছি। তিন দিন আগে শ্বশুরের কাছ থেকে শুনলাম, সম্পত্তি বণ্টন নিয়ে তার দ্বিতীয় স্ত্রী মারজানা বেগমের সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে।

এ কারণে তিনি বাড়িতে খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। শুক্রবার জুমার নামাজের পর শাশুড়ি মারজানা আমাকে ফোন করে বলেন, সকাল থেকে তিনি (মর্তুজা মিয়া) নিখোঁজ। অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পাওয়ায় আমি সন্ধ্যায় থানায় ডায়েরি করি।

মনোহরগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খাঁন বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডিপ্রেস/আরজে