BDpress

রিয়াল ভক্তদের উদ্দেশ্যে রোনালদোর খোলা চিঠি

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
রিয়াল ভক্তদের উদ্দেশ্যে রোনালদোর খোলা চিঠি
অবশেষে সব জল্পনা-কল্পনা পিছনে ফেলে সত্যি সত্যিই রিয়াল মাদ্রিদ থেকে বিদায় নিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ৯ বছরের সম্পর্কের ইতি ঘটিয়ে দিলেন ১০ জুলাই। কিয়েভে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে লিভারপুলকে হারিয়ে টানা তৃতীয় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের দিনেই দল ছাড়ার যে ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন তিনি, শেষ পর্যন্ত তা বাস্তবেই রূপ নিলো।

নয় বছরের ঘটনাবহুল রিয়াল অধ্যায় রচিত করার পর রোনালদো এখন ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের। সেই যে ২০০৯ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেড়ে লস ব্লাঙ্কোজদের জার্সি গায়ে দিয়েছিল, এরপরের সময়টাতো পুরোই ইতিহাস। রিয়ালের হয়ে জিতেছেন সম্ভাব্য সব শিরোপা। দলীয় সাফল্যর পাশাপাশি ব্যাক্তিগতভাবে রোনালদোও যেন সেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রোনালদো চেয়ে আরও বেশি উজ্জ্বল আরও বেশি ক্ষুরধার।

তবে এই ৯ বছরে কাটানো স্মৃতি, এতো শত রেকর্ড! বার্নাব্যুর হাজারো দর্শকদের পায়ের জাদুতে মাত করে রাখা- রোনালদো কি এসব মিস করবেন না? করবেন! রোনালদো অবশ্যই করবেন। জানিয়েছেন তিনি নিজেই। রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে নতুন গন্তব্য জুভেন্টাসে ঘর বাঁধার আগে দর্শকদের উদ্দেশ্যে লেখা এক খোলা চিঠিতে রোনালদো তেমনটাই জানিয়েছেন।

রিয়াল সমর্থকদের উদ্দেশ্যে লেখা রোনালদোর খোলা চিঠিটি তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য।

‘এই রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাব আর এই মাদ্রিদ শহর। আমার মতে, ক্যারিয়ারের সেরা সময়টুকু এখানে কাটিয়েছি। এই ক্লাবের প্রতি এখন শুধু আমি আমার কৃতজ্ঞতাটাই প্রকাশ করতে পারি। এই পেশা ও এই শহররে প্রতিও আমি দারুণভাবে কৃতজ্ঞ। তাদের এই ভালবাসা ও স্নেহ-মমতার জন্য আমি শুধুমাত্র ধন্যবাদই জানাতে পারি।

আমি বিশ্বাস করি, এটাই আমার জন্য সঠিক সময়, জীবনে নতুন অধ্যায় সূচনা করার। আর ঠিক এ কারণেই ক্লাবকে অনুরোধ করেছিলাম, যাতে আমার দলবদলের বিষয়টি তারা গ্রহণ করে নেয়। শুধুমাত্র নতুন ধাপে পা দিতেই আমি ঠিক এভাবে ভাবতে পেরেছিলাম। এটা ভেবেই আমি সবাইকে বলেছিলাম, যাতে আমাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তাই সবাইকে, বিশেষ করে আমার অনুরাগীদের বলতে চাই, দয়া করে আপনারা আমাকে বুঝতে চেষ্টা করুন!

এই ৯ বছর তারা অত্যন্ত চমৎকার আচরণ করেছে আমার সাথে। আমার জন্য বিশেষ কিছু ছিল এই ন’টা বছর। আমার জন্য এ সময়টা ছিল আনন্দে ভরপুর। যা’ই করেছি চিন্তা এবং বিবেচনা করে করেছি। অনেক ক্ষেত্রে কঠিনও ছিল এ সময়টা। কেননা মাদ্রিদের মত ক্লাবে নিশ্চয়ই প্রচুর চাহিদা থাকে। তবে হ্যাঁ, আমি জানি আর এটাও হলফ করে বলতে পারি যে, ভিন্ন ধারার বিশেষ ফুটবল খেলে আমি এখানে যেভাবে ফুটবলটাকে উপভোগ গেলাম তা আমি কখনই ভুলতে পারবো না।

এখানে মাঠে আর মাঠের বাইরে চমৎকার কিছু বন্ধু পেয়েছিলাম। এতদিন তাদের মাঝে থেকে অবিশ্বাস্য রকমের উষ্ণতা অনুভব করেছি। একসাথে আমরা টানা তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করেছি। গেল পাঁচ বছরের মধ্যে যা কিনা চারবার। ভাবা যায়! আর তাদের সহযোগিতায়ই ব্যাক্তিগতভাবেও অনেক সাফল্য পেয়েছি আমি। তাদের সাহচর্যে থেকে ৪টি ব্যালন ডি’অর, ৩টি গোল্ডেন বুটও অর্জন করেছি। এগুলো সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র এমন একটি দল আর অসাধারণ একটি ক্লাবে থাকার কারণেই।

রিয়াল মাদ্রিদ আমার এবং আমার পরিবারের মন জয় করে নিয়েছে। আর ঠিক এই কারণেই সকলকে আমি আমার অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি- ধন্যবাদ এই ক্লাবকে, ধন্যবাদ এখানকার সভাপতিকে, ধন্যবাদ সকল পরিচালকদের, ধন্যবাদ আমার সতীর্থদের, সকল টেকনিশিয়ানদের, এখানকার চিকিৎসক, ফিজিও আর অবিশ্বাস্য সব কর্মচারীদের। যারা কিনা অক্লান্তভাবে পরিশ্রম করে আমাকে সব কাজে সবসময় সহযোগিতা করে গেছেন।

আবারও অশেষ অশেষ ধন্যবাদ জানাই আমাদের সমর্থকদের। এর সাথে স্প্যানিশ ফুটবলকেও। আনন্দদায়ক এই ৯টি বছরে এখানে আমি অনেক নামিদামি খেলোয়াড়েরও মুখোমুখি হয়েছি। সে সকল কিংবদন্তীদেরও আমি আমার সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।

এখান থেকে অনেক কিছু শিখেছি আমি। আর এটাও জানি যে, সময় এসে গেছে নতুন কিছু শেখার জন্য। হয়তো আমি এখান থেকে চলে যাচ্ছি, তবে আমি যেখানেই থাকি না কেন এই সাদা জামা, এই ব্যাজ আর এই সান্তিয়াগো বার্নাব্যু- সবসময় আমার হৃদয়েই মিশে থাকবে।

ধন্যবাদ সবাইকে। আর হ্যাঁ আরও একটি কথা- যেটা ঠিক ন’বছর আগে এখানে এসে সবার সামনে দাঁড়িয়ে বলেছিলাম। সেটা আজ আবারও বলে বিদায় নিচ্ছি – ‘আলা মাদ্রিদ!!’

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

রিয়াল ভক্তদের উদ্দেশ্যে রোনালদোর খোলা চিঠি


রিয়াল ভক্তদের উদ্দেশ্যে রোনালদোর খোলা চিঠি

নয় বছরের ঘটনাবহুল রিয়াল অধ্যায় রচিত করার পর রোনালদো এখন ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের। সেই যে ২০০৯ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেড়ে লস ব্লাঙ্কোজদের জার্সি গায়ে দিয়েছিল, এরপরের সময়টাতো পুরোই ইতিহাস। রিয়ালের হয়ে জিতেছেন সম্ভাব্য সব শিরোপা। দলীয় সাফল্যর পাশাপাশি ব্যাক্তিগতভাবে রোনালদোও যেন সেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রোনালদো চেয়ে আরও বেশি উজ্জ্বল আরও বেশি ক্ষুরধার।

তবে এই ৯ বছরে কাটানো স্মৃতি, এতো শত রেকর্ড! বার্নাব্যুর হাজারো দর্শকদের পায়ের জাদুতে মাত করে রাখা- রোনালদো কি এসব মিস করবেন না? করবেন! রোনালদো অবশ্যই করবেন। জানিয়েছেন তিনি নিজেই। রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে নতুন গন্তব্য জুভেন্টাসে ঘর বাঁধার আগে দর্শকদের উদ্দেশ্যে লেখা এক খোলা চিঠিতে রোনালদো তেমনটাই জানিয়েছেন।

রিয়াল সমর্থকদের উদ্দেশ্যে লেখা রোনালদোর খোলা চিঠিটি তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য।

‘এই রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাব আর এই মাদ্রিদ শহর। আমার মতে, ক্যারিয়ারের সেরা সময়টুকু এখানে কাটিয়েছি। এই ক্লাবের প্রতি এখন শুধু আমি আমার কৃতজ্ঞতাটাই প্রকাশ করতে পারি। এই পেশা ও এই শহররে প্রতিও আমি দারুণভাবে কৃতজ্ঞ। তাদের এই ভালবাসা ও স্নেহ-মমতার জন্য আমি শুধুমাত্র ধন্যবাদই জানাতে পারি।

আমি বিশ্বাস করি, এটাই আমার জন্য সঠিক সময়, জীবনে নতুন অধ্যায় সূচনা করার। আর ঠিক এ কারণেই ক্লাবকে অনুরোধ করেছিলাম, যাতে আমার দলবদলের বিষয়টি তারা গ্রহণ করে নেয়। শুধুমাত্র নতুন ধাপে পা দিতেই আমি ঠিক এভাবে ভাবতে পেরেছিলাম। এটা ভেবেই আমি সবাইকে বলেছিলাম, যাতে আমাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তাই সবাইকে, বিশেষ করে আমার অনুরাগীদের বলতে চাই, দয়া করে আপনারা আমাকে বুঝতে চেষ্টা করুন!

এই ৯ বছর তারা অত্যন্ত চমৎকার আচরণ করেছে আমার সাথে। আমার জন্য বিশেষ কিছু ছিল এই ন’টা বছর। আমার জন্য এ সময়টা ছিল আনন্দে ভরপুর। যা’ই করেছি চিন্তা এবং বিবেচনা করে করেছি। অনেক ক্ষেত্রে কঠিনও ছিল এ সময়টা। কেননা মাদ্রিদের মত ক্লাবে নিশ্চয়ই প্রচুর চাহিদা থাকে। তবে হ্যাঁ, আমি জানি আর এটাও হলফ করে বলতে পারি যে, ভিন্ন ধারার বিশেষ ফুটবল খেলে আমি এখানে যেভাবে ফুটবলটাকে উপভোগ গেলাম তা আমি কখনই ভুলতে পারবো না।

এখানে মাঠে আর মাঠের বাইরে চমৎকার কিছু বন্ধু পেয়েছিলাম। এতদিন তাদের মাঝে থেকে অবিশ্বাস্য রকমের উষ্ণতা অনুভব করেছি। একসাথে আমরা টানা তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করেছি। গেল পাঁচ বছরের মধ্যে যা কিনা চারবার। ভাবা যায়! আর তাদের সহযোগিতায়ই ব্যাক্তিগতভাবেও অনেক সাফল্য পেয়েছি আমি। তাদের সাহচর্যে থেকে ৪টি ব্যালন ডি’অর, ৩টি গোল্ডেন বুটও অর্জন করেছি। এগুলো সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র এমন একটি দল আর অসাধারণ একটি ক্লাবে থাকার কারণেই।

রিয়াল মাদ্রিদ আমার এবং আমার পরিবারের মন জয় করে নিয়েছে। আর ঠিক এই কারণেই সকলকে আমি আমার অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি- ধন্যবাদ এই ক্লাবকে, ধন্যবাদ এখানকার সভাপতিকে, ধন্যবাদ সকল পরিচালকদের, ধন্যবাদ আমার সতীর্থদের, সকল টেকনিশিয়ানদের, এখানকার চিকিৎসক, ফিজিও আর অবিশ্বাস্য সব কর্মচারীদের। যারা কিনা অক্লান্তভাবে পরিশ্রম করে আমাকে সব কাজে সবসময় সহযোগিতা করে গেছেন।

আবারও অশেষ অশেষ ধন্যবাদ জানাই আমাদের সমর্থকদের। এর সাথে স্প্যানিশ ফুটবলকেও। আনন্দদায়ক এই ৯টি বছরে এখানে আমি অনেক নামিদামি খেলোয়াড়েরও মুখোমুখি হয়েছি। সে সকল কিংবদন্তীদেরও আমি আমার সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।

এখান থেকে অনেক কিছু শিখেছি আমি। আর এটাও জানি যে, সময় এসে গেছে নতুন কিছু শেখার জন্য। হয়তো আমি এখান থেকে চলে যাচ্ছি, তবে আমি যেখানেই থাকি না কেন এই সাদা জামা, এই ব্যাজ আর এই সান্তিয়াগো বার্নাব্যু- সবসময় আমার হৃদয়েই মিশে থাকবে।

ধন্যবাদ সবাইকে। আর হ্যাঁ আরও একটি কথা- যেটা ঠিক ন’বছর আগে এখানে এসে সবার সামনে দাঁড়িয়ে বলেছিলাম। সেটা আজ আবারও বলে বিদায় নিচ্ছি – ‘আলা মাদ্রিদ!!’

বিডিপ্রেস/আরজে