BDpress

ফ্রিজে যে খাবারগুলো একসঙ্গে রাখবেন না

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
ফ্রিজে যে খাবারগুলো একসঙ্গে রাখবেন না
প্রায় দেখা যায় বাজার থেকে ফলমূল আর শাকসবজি এনে একসঙ্গে ফ্রিজে রাখেন অনেকেই। একদিন যেতে না যেতেই সেই শাকসবজি আর ফলমূলের তরতাজা ভাবটা নষ্ট হয়ে যায়। এর কারণ হচ্ছে কিছু কিছু শাকসবজি ও ফলমূল একসঙ্গে রাখা যায় না।

চলুন রিডার্স ডাইজেস্ট অবলম্বনে জেনে নেই ফ্রিজে কোন খাবার একসঙ্গে রাখতে নেই এবং শাকসবজি আর ফলমূল তরতাজা রাখার নিয়ম।

শসা রাখতে হবে আলাদা

টমেটো, কলা, এবং তরমুজের ইথিলিন গ্যাস তৈরি করে। এই গ্যাসটি ফলমূল ও শাকসবজি পাকাতে সাহায্য করে। শসার শরীরে এই ইথিলিন গ্যাস লাগলে শসা তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। তাই ফ্রিজে শসাকে আলাদা রাখুন।

পুদিনা ও ধনেপাতার আলাদা যত্ন

পুদিনা ও ধনেপাতা জাতীয় ভেষজ পাতাকে ফুলের মতো যত্ন নিন। এই পাতাগুলো যাতে শুকনো থাকে সেটা সবার আগে নিশ্চিত করতে হবে। তারপর এগুলোকে কোনো বয়ামে পানি ঢেলে ভেতরে চুবিয়ে রাখুন। দুই সপ্তাহের মতো টিকবে। তবে পানিটা একটু ময়লা হয়ে এলে আবার নতুন পানি ঢেলে দিন।

মিষ্টি কুমড়ার সঙ্গে আপেল নয়

মিষ্টি কুমড়ার সঙ্গে আপেল কখনোই একসঙ্গে রাখা যাবে না। একসঙ্গে রাখলে আপেল নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

গাজর-মূলা ফ্রিজের বাইরে রাখুন

মাটির নিচে থাকা শাকসবজি যেমন গাজর, মূলা, বিট, পেয়াজকে ফ্রিজে না রাখাই ভালো। এগুলো ঘরের কোনো ঠাণ্ডা, অন্ধকার এবং আদ্র কোনও জায়গায় রাখলেই অনেকদিন টিকে থাকে। ফ্রিজে রাখলে বরং এগুলো নষ্ট হয়ে যায়।

আঙ্গুর-চেরি ফলকে গোসল দিয়ে ফ্রিজে রাখুন

বেরি জাতীয় ফল যেমন আঙুর এবং চেরি ফলকে অনেকদিন টিকিয়ে রাখার জন্য এক কাপ ভিনেগার পরিমাণমতো পানিতে মিশিয়ে ওই পানি দিয়ে ফলগুলো ধুয়ে ফ্রিজে রাখুন।

আপেল এবং কমলাকে রাখুন আলাদা

আপেল এবং কমলাকে ফ্রিজে একসঙ্গে রাখা যাবে না। কমলাকে আলাদা একটি জালিযুক্ত ব্যাগে আলাদা করে রাখতে হবে যাতে এর মধ্যে বাতাস যেতে পারে।

আলু এবং পেয়াজ একসঙ্গে নয়

আলু এবং পেয়াজকে একসঙ্গে রাখবেন না। বরং পেয়াজের সঙ্গে রাখতে পারেন রসুনকে। অনেকদিন তরতাজা থাকবে।

অ্যাভাকাডো আর কলা দুই মেরুতে

অ্যাভাকাডো যেহেতু দামী একটি ফল তাই এর সংরক্ষণেও থাকতে হবে সচেতন। এই ফলটি অনেকদিন টিকিয়ে রাখার জন্য কলার সঙ্গে কখনোই রাখা যাবে না। নষ্ট হতে থাকবে অ্যাভাকাডো। তবে বেশিদিন টিকিয়ে রাখার জন্য ফলটিকে কেটে একটি এয়ারটাইট বাক্সে করে রেখে দিলে যাবে অনেকদিন।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ফ্রিজে যে খাবারগুলো একসঙ্গে রাখবেন না


ফ্রিজে যে খাবারগুলো একসঙ্গে রাখবেন না

চলুন রিডার্স ডাইজেস্ট অবলম্বনে জেনে নেই ফ্রিজে কোন খাবার একসঙ্গে রাখতে নেই এবং শাকসবজি আর ফলমূল তরতাজা রাখার নিয়ম।

শসা রাখতে হবে আলাদা

টমেটো, কলা, এবং তরমুজের ইথিলিন গ্যাস তৈরি করে। এই গ্যাসটি ফলমূল ও শাকসবজি পাকাতে সাহায্য করে। শসার শরীরে এই ইথিলিন গ্যাস লাগলে শসা তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। তাই ফ্রিজে শসাকে আলাদা রাখুন।

পুদিনা ও ধনেপাতার আলাদা যত্ন

পুদিনা ও ধনেপাতা জাতীয় ভেষজ পাতাকে ফুলের মতো যত্ন নিন। এই পাতাগুলো যাতে শুকনো থাকে সেটা সবার আগে নিশ্চিত করতে হবে। তারপর এগুলোকে কোনো বয়ামে পানি ঢেলে ভেতরে চুবিয়ে রাখুন। দুই সপ্তাহের মতো টিকবে। তবে পানিটা একটু ময়লা হয়ে এলে আবার নতুন পানি ঢেলে দিন।

মিষ্টি কুমড়ার সঙ্গে আপেল নয়

মিষ্টি কুমড়ার সঙ্গে আপেল কখনোই একসঙ্গে রাখা যাবে না। একসঙ্গে রাখলে আপেল নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

গাজর-মূলা ফ্রিজের বাইরে রাখুন

মাটির নিচে থাকা শাকসবজি যেমন গাজর, মূলা, বিট, পেয়াজকে ফ্রিজে না রাখাই ভালো। এগুলো ঘরের কোনো ঠাণ্ডা, অন্ধকার এবং আদ্র কোনও জায়গায় রাখলেই অনেকদিন টিকে থাকে। ফ্রিজে রাখলে বরং এগুলো নষ্ট হয়ে যায়।

আঙ্গুর-চেরি ফলকে গোসল দিয়ে ফ্রিজে রাখুন

বেরি জাতীয় ফল যেমন আঙুর এবং চেরি ফলকে অনেকদিন টিকিয়ে রাখার জন্য এক কাপ ভিনেগার পরিমাণমতো পানিতে মিশিয়ে ওই পানি দিয়ে ফলগুলো ধুয়ে ফ্রিজে রাখুন।

আপেল এবং কমলাকে রাখুন আলাদা

আপেল এবং কমলাকে ফ্রিজে একসঙ্গে রাখা যাবে না। কমলাকে আলাদা একটি জালিযুক্ত ব্যাগে আলাদা করে রাখতে হবে যাতে এর মধ্যে বাতাস যেতে পারে।

আলু এবং পেয়াজ একসঙ্গে নয়

আলু এবং পেয়াজকে একসঙ্গে রাখবেন না। বরং পেয়াজের সঙ্গে রাখতে পারেন রসুনকে। অনেকদিন তরতাজা থাকবে।

অ্যাভাকাডো আর কলা দুই মেরুতে

অ্যাভাকাডো যেহেতু দামী একটি ফল তাই এর সংরক্ষণেও থাকতে হবে সচেতন। এই ফলটি অনেকদিন টিকিয়ে রাখার জন্য কলার সঙ্গে কখনোই রাখা যাবে না। নষ্ট হতে থাকবে অ্যাভাকাডো। তবে বেশিদিন টিকিয়ে রাখার জন্য ফলটিকে কেটে একটি এয়ারটাইট বাক্সে করে রেখে দিলে যাবে অনেকদিন।

বিডিপ্রেস/আরজে