BDpress

এক অংক সুদেই ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকার ঋণ পাবেন কৃষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
এক অংক সুদেই ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকার ঋণ পাবেন কৃষকরা
চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকার কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এটি গত ২০১৭-১৮ অর্থবছর থেকে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি।

আজ বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে ডেপুটি গর্ভনর এসএম মনিরুজ্জামান বলেন, কৃষি ও পল্লী ঋণের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই এই  লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬০ শতাংশ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিতরণ করা হবে শস্য খাতে। 

‘মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাত পাবে অন্তত ১০ শতাংশ। বাকি অর্থ যাবে কৃষি যন্ত্রপাতি,দারিদ্র্য বিমোচন,ভাসমান পদ্ধতিতে চাষাবাদ,টার্কি পালন ও অন্যান্য খাতে।’

গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার ৪০০ কোটি টাকা।

মনিরুজ্জামান এসময় বলেন, গত জুলাই থেকে ঋণের সুদ হার ৯ শতাংশ হওয়ার কথা। কৃষি ও পল্লী ঋণের ক্ষেত্রেও একই হার বিদ্যমান থাকবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক অশোক কুমার দে ও কষি ঋণ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মনোজ কান্তি বৈরাগী। 

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

এক অংক সুদেই ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকার ঋণ পাবেন কৃষকরা


এক অংক সুদেই ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকার ঋণ পাবেন কৃষকরা

আজ বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে ডেপুটি গর্ভনর এসএম মনিরুজ্জামান বলেন, কৃষি ও পল্লী ঋণের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই এই  লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬০ শতাংশ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিতরণ করা হবে শস্য খাতে। 

‘মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাত পাবে অন্তত ১০ শতাংশ। বাকি অর্থ যাবে কৃষি যন্ত্রপাতি,দারিদ্র্য বিমোচন,ভাসমান পদ্ধতিতে চাষাবাদ,টার্কি পালন ও অন্যান্য খাতে।’

গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার ৪০০ কোটি টাকা।

মনিরুজ্জামান এসময় বলেন, গত জুলাই থেকে ঋণের সুদ হার ৯ শতাংশ হওয়ার কথা। কৃষি ও পল্লী ঋণের ক্ষেত্রেও একই হার বিদ্যমান থাকবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক অশোক কুমার দে ও কষি ঋণ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মনোজ কান্তি বৈরাগী। 

বিডিপ্রেস/আরজে