BDpress

ডেঙ্গুজ্বরে চিকিৎসকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
ডেঙ্গুজ্বরে চিকিৎসকের মৃত্যু
রাজধানীতে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ফয়সাল বিল্লাহ নামে এক তরুণ চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। বারডেম হাসপাতালে টানা তিনদিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে বুধবার দিবাগত রাত ৩টায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি… রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ২৭ বছর।

বারডেম হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) শহীদুল হক মল্লিক এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, তিনদিন আগে ঢাকার বেসরকারি সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সময় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। ২৩ জুলাই সন্ধ্যা ৬টায় তাকে বারডেম হাসপাতালে ভর্তির পর রাত ১২টায় আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) স্থানান্তর করা হয়।

হাসপাতালের যুগ্ম-পরিচালক ডা. নাজমুল ইসলাম জানান, বুধবার দুপুরের পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। তার রক্তের প্লাটিলেটের পরিমাণ ৩২ হাজারে নেমে (স্বাভাবিক পরিমাণ ১ লাখ ৫০ হাজার) আসে। ফলে কিডনি ফেইলিউরসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ অকেজো হয়ে পড়ে। রাত ৩টায় তিনি মারা যান।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ন্যাশনাল ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার ও নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ইনচার্জ ডা. আয়েশা আক্তার ওই চিকিৎসকের বন্ধুদের বরাত দিয়ে জানান, ডা.ফয়সাল ঢাকার বাইরে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। তার সম্পর্কে বিস্তারিত আর কিছু জানা যায়নি।  

চলতি বছর ডেঙ্গুজ্বরে মোট আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে জানুয়ারিতে একজন, জুনে তিনজন ও জুলাই মাসে চারজনের মৃত্যু হয়।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ডেঙ্গুজ্বরে চিকিৎসকের মৃত্যু


ডেঙ্গুজ্বরে চিকিৎসকের মৃত্যু

বারডেম হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) শহীদুল হক মল্লিক এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, তিনদিন আগে ঢাকার বেসরকারি সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সময় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। ২৩ জুলাই সন্ধ্যা ৬টায় তাকে বারডেম হাসপাতালে ভর্তির পর রাত ১২টায় আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) স্থানান্তর করা হয়।

হাসপাতালের যুগ্ম-পরিচালক ডা. নাজমুল ইসলাম জানান, বুধবার দুপুরের পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। তার রক্তের প্লাটিলেটের পরিমাণ ৩২ হাজারে নেমে (স্বাভাবিক পরিমাণ ১ লাখ ৫০ হাজার) আসে। ফলে কিডনি ফেইলিউরসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ অকেজো হয়ে পড়ে। রাত ৩টায় তিনি মারা যান।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ন্যাশনাল ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার ও নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ইনচার্জ ডা. আয়েশা আক্তার ওই চিকিৎসকের বন্ধুদের বরাত দিয়ে জানান, ডা.ফয়সাল ঢাকার বাইরে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। তার সম্পর্কে বিস্তারিত আর কিছু জানা যায়নি।  

চলতি বছর ডেঙ্গুজ্বরে মোট আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে জানুয়ারিতে একজন, জুনে তিনজন ও জুলাই মাসে চারজনের মৃত্যু হয়।

বিডিপ্রেস/আরজে