BDpress

উজবেকদের কাছে হ্যাটট্রিক পরাজয় বাংলাদেশের

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
উজবেকদের কাছে হ্যাটট্রিক পরাজয় বাংলাদেশের
ফুটবলে বাংলাদেশের মেয়েরা যখন লাল সবুজের পতাকা উড়িয়ে যাচ্ছে বিশ্ব দরবারে। তখন ছেলেরা একের পর এক পরাজয়ের তিলক আঁকছে কপালে। এ যেন একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ।

গতকাল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলে বাংলাদেশের মেয়েরা ভূটানকে বিধ্বস্ত করে সেমিফাইনালে স্থান করে নেয়। অন্যদিকে তিনবারের দেখায় হ্যাটট্রিক পরাজয়ই দেখলো ছেলেরা। 

২০১০ সালে গুয়াংজু, ২০১৪ সালে ইনচিয়নের পর এবার পরাজয় জাকার্তা এশিয়ান গেমসে। তবে সবচেয়ে কাকতালীয় বিষয় হচ্ছে পরাজিত তিনটি ম্যাচেই ব্যবধান ছিল ৩-০ গোলের।

এশিয়ান গেমসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন যদিও ১৮ আগস্ট। তবে ফুটবল ইভেন্ট দিয়ে আসর শুরু হয়ে গেছে আগেই। ১০ আগস্ট শুরু হয় ফুটবল ইভেন্ট। মঙ্গলবার শুরু হলো ‘বি’ গ্রুপে থাকা বাংলাদেশের মিশন। 

জাকার্তা থেকে ৪৭ কিলোমিটার দূরের শহর সিবিনংয়ের পাকান সারি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টায় শুরু হয় খেলা। আর এ ম্যাচ দিয়েই বাংলাদেশের ডাগআউটে অভিষেক হয় ইংলিশ কোচ জেমি ডের। 

ম্যাচের শুরু থেকেই বাংলাদেশকে চেপে ধরে উজবেকিস্তান। প্রথম ২০ মিনিট বলের পেছনেই ছুটতে ছুটতে শেষ। এরপর ২৩তম মিনিটেই প্রথম গোল। ডান দিক দিয়ে আলিবায়েভেবের ক্রস থেকে হেডে গোল করেন ইউরিনবোয়েভ জাবিখিলো। 

এরপর শুধু আক্রমণ আর আক্রমণ। বাংলাদেশের ডিফেন্সকে ব্যতিব্যস্ত রাখে উজবেকিস্তান। শেষ পর্যন্ত এক গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় উভয় দল। বিরতি থেকে ফিরে ৯ মিনিটের মধ্যেই দু’গোল হজম করে বাংলাদেশ। 

ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে দলের গোল দ্বিগুণ করেন খামদামভ দস্তনবেক। ৬৬ মিনিটে উজেবিকস্তানের তৃতীয় গোল করেন আলিবায়েভেব ইকরমজন।

বাংলাদেশ এ ম্যাচে আরও বেশি গোলের ব্যবধানে পরাজিত হতে পারত। কিন্তু গোলপোস্টের নিচে রানার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স বাংলাশেকে আরো বড় হারের লজ্জা থেকে বাঁচায়। পুরো ম্যাচে গোলরক্ষক গোটা সাতেক দুর্দান্ত সেভ করেছেন এই ম্যাচে।

পুরো ম্যাচে উজবেকরা ৭৩ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখেছিল।  উজবেকরা বাংলাদেশের পোস্টে ১১ বার শট নিয়েছে। বিপরীতে অন টার্গেটে জাফর-সাদরা একবারও শট নিতে পারেনি। 

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ গ্রুপে তাদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে।  আর আগামী রোববার কাতারের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচ খেলবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

উজবেকদের কাছে হ্যাটট্রিক পরাজয় বাংলাদেশের


উজবেকদের কাছে হ্যাটট্রিক পরাজয় বাংলাদেশের

গতকাল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলে বাংলাদেশের মেয়েরা ভূটানকে বিধ্বস্ত করে সেমিফাইনালে স্থান করে নেয়। অন্যদিকে তিনবারের দেখায় হ্যাটট্রিক পরাজয়ই দেখলো ছেলেরা। 

২০১০ সালে গুয়াংজু, ২০১৪ সালে ইনচিয়নের পর এবার পরাজয় জাকার্তা এশিয়ান গেমসে। তবে সবচেয়ে কাকতালীয় বিষয় হচ্ছে পরাজিত তিনটি ম্যাচেই ব্যবধান ছিল ৩-০ গোলের।

এশিয়ান গেমসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন যদিও ১৮ আগস্ট। তবে ফুটবল ইভেন্ট দিয়ে আসর শুরু হয়ে গেছে আগেই। ১০ আগস্ট শুরু হয় ফুটবল ইভেন্ট। মঙ্গলবার শুরু হলো ‘বি’ গ্রুপে থাকা বাংলাদেশের মিশন। 

জাকার্তা থেকে ৪৭ কিলোমিটার দূরের শহর সিবিনংয়ের পাকান সারি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টায় শুরু হয় খেলা। আর এ ম্যাচ দিয়েই বাংলাদেশের ডাগআউটে অভিষেক হয় ইংলিশ কোচ জেমি ডের। 

ম্যাচের শুরু থেকেই বাংলাদেশকে চেপে ধরে উজবেকিস্তান। প্রথম ২০ মিনিট বলের পেছনেই ছুটতে ছুটতে শেষ। এরপর ২৩তম মিনিটেই প্রথম গোল। ডান দিক দিয়ে আলিবায়েভেবের ক্রস থেকে হেডে গোল করেন ইউরিনবোয়েভ জাবিখিলো। 

এরপর শুধু আক্রমণ আর আক্রমণ। বাংলাদেশের ডিফেন্সকে ব্যতিব্যস্ত রাখে উজবেকিস্তান। শেষ পর্যন্ত এক গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় উভয় দল। বিরতি থেকে ফিরে ৯ মিনিটের মধ্যেই দু’গোল হজম করে বাংলাদেশ। 

ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে দলের গোল দ্বিগুণ করেন খামদামভ দস্তনবেক। ৬৬ মিনিটে উজেবিকস্তানের তৃতীয় গোল করেন আলিবায়েভেব ইকরমজন।

বাংলাদেশ এ ম্যাচে আরও বেশি গোলের ব্যবধানে পরাজিত হতে পারত। কিন্তু গোলপোস্টের নিচে রানার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স বাংলাশেকে আরো বড় হারের লজ্জা থেকে বাঁচায়। পুরো ম্যাচে গোলরক্ষক গোটা সাতেক দুর্দান্ত সেভ করেছেন এই ম্যাচে।

পুরো ম্যাচে উজবেকরা ৭৩ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখেছিল।  উজবেকরা বাংলাদেশের পোস্টে ১১ বার শট নিয়েছে। বিপরীতে অন টার্গেটে জাফর-সাদরা একবারও শট নিতে পারেনি। 

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ গ্রুপে তাদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে।  আর আগামী রোববার কাতারের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচ খেলবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

বিডিপ্রেস/আরজে