BDpress

হারলেন হাসিন, জিতলেন মোহাম্মদ শামি

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
হারলেন হাসিন, জিতলেন মোহাম্মদ শামি
স্ত্রী হাসিন জাহানের বিরুদ্ধে এবার জয় পেলেন ভারতীয় ক্রিকেটার মোহাম্মদ শামি। এ মামলায় শামির কাছ থেকে প্রতি মাসে ভরণপোষণের জন্য সাত লাখ টাকা ও মেয়ের পড়াশুনার খরচ বাবদ আরও তিন লাখ টাকাসহ মোট ১০ লাখ টাকা দাবি জানিয়ে আদালতে আবেদন করেছিলেন হাসিন।

বৃহস্পতিবার ভারতের আলিপুর আদালতের তিন নম্বর বিচারবিভাগীয় বিচারক নেহা শর্মা হাসিনের এ আবেদন নাকচ করে দেয়।

তবে প্রতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে মেয়ের পড়াশোনা ও অন্যান্য খরচ বাবদ মাসিক ৮০ হাজার টাকা শামিকে দিতে হবে বলে নির্দেশ দেয় আদালত।

এ রায়ের পর শামির আইনজীবী সেলিম রহমান বলেন, আমার মক্কেল মেয়ের খরচ দেবেন, এটা আগেই আদালতকে জানিয়েছিলাম। আদালতে তা মঞ্জুরও হয়েছে।

হাসিনকে কেন নয় এ ব্যাপারে তিনি জানান, হাসিন তার পুরনো পেশা মডেলিং ও অভিনয়ে ফিরে গেছেন। অর্থাৎ তিনি নিজেই এখন উপার্জনক্ষম। বিষয়টি আদালতে প্রমাণিত হওয়ায় আমরা জয় পেয়েছি।

তবে হাসিন এখনো পাকাপক্তভাবে কোনো কাজে যোগদান করেন নি বলে হাসিনের আইনজীবি জাকির হোসেন পাল্টা যুক্তি দিলেও আদালত তা আমলে নেয়নি।

এছাড়া হাসিন আগেও বিয়ে করেছেন ও তার দুই কন্যা সন্তান রয়েছে এমন তথ্য দেয়া হয় আদালতকে।

ম্যারেজ সার্টিফিকেটের এক ফটোকপি জমা দিয়ে শামির আইনজীবি সেলিম রহমান বলেন, এখানে হাসিনকে অবিবাহিত দেখানো হয়েছে। এতেই প্রমাণিত যে শামির কাছে হাসিন তথ্য গোপন করেছিলেন।

প্রসঙ্গত হাসিন জাহান কলকাতায় গিয়ে মডেলিং শুরু করেন হাসিন। একসময়ে ‘চিয়ারলিডার’-এর কাজ পান। তখনই ক্রিকেটার শামির সঙ্গে তার পরিচয় হয়।এরপর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

বিডিপ্রেস/আরজে


এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

হারলেন হাসিন, জিতলেন মোহাম্মদ শামি


হারলেন হাসিন, জিতলেন মোহাম্মদ শামি

বৃহস্পতিবার ভারতের আলিপুর আদালতের তিন নম্বর বিচারবিভাগীয় বিচারক নেহা শর্মা হাসিনের এ আবেদন নাকচ করে দেয়।

তবে প্রতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে মেয়ের পড়াশোনা ও অন্যান্য খরচ বাবদ মাসিক ৮০ হাজার টাকা শামিকে দিতে হবে বলে নির্দেশ দেয় আদালত।

এ রায়ের পর শামির আইনজীবী সেলিম রহমান বলেন, আমার মক্কেল মেয়ের খরচ দেবেন, এটা আগেই আদালতকে জানিয়েছিলাম। আদালতে তা মঞ্জুরও হয়েছে।

হাসিনকে কেন নয় এ ব্যাপারে তিনি জানান, হাসিন তার পুরনো পেশা মডেলিং ও অভিনয়ে ফিরে গেছেন। অর্থাৎ তিনি নিজেই এখন উপার্জনক্ষম। বিষয়টি আদালতে প্রমাণিত হওয়ায় আমরা জয় পেয়েছি।

তবে হাসিন এখনো পাকাপক্তভাবে কোনো কাজে যোগদান করেন নি বলে হাসিনের আইনজীবি জাকির হোসেন পাল্টা যুক্তি দিলেও আদালত তা আমলে নেয়নি।

এছাড়া হাসিন আগেও বিয়ে করেছেন ও তার দুই কন্যা সন্তান রয়েছে এমন তথ্য দেয়া হয় আদালতকে।

ম্যারেজ সার্টিফিকেটের এক ফটোকপি জমা দিয়ে শামির আইনজীবি সেলিম রহমান বলেন, এখানে হাসিনকে অবিবাহিত দেখানো হয়েছে। এতেই প্রমাণিত যে শামির কাছে হাসিন তথ্য গোপন করেছিলেন।

প্রসঙ্গত হাসিন জাহান কলকাতায় গিয়ে মডেলিং শুরু করেন হাসিন। একসময়ে ‘চিয়ারলিডার’-এর কাজ পান। তখনই ক্রিকেটার শামির সঙ্গে তার পরিচয় হয়।এরপর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

বিডিপ্রেস/আরজে