BDpress

রাজধানীতে ভাড়াটিয়া সেজে লুটপাট, প্রাণ গেল দম্পতির

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
রাজধানীতে ভাড়াটিয়া সেজে লুটপাট, প্রাণ গেল দম্পতির
রাজধানীর ডেমরায় ভাড়াটে সেজে বাসায় ঢুকে এক দম্পতিকে অচেতন করে মালপত্র লুট করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে ওই দম্পতি আবদুস সাত্তার (৭০) ও সাহেরা খাতুনকে (৬০) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

রোববার সারুলিয়ার পূর্ব বপনগরে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেশীরা জানান, বাড়ি ভাড়া নেয়ার কথা বলে পাঁচ নারী বাসায় ঢুকে তাদের অচেতন করে। পরে তাদের ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হলে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে চিকিৎসক সাহারা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে আব্দুস সাত্তারও মারা যান।

জানা গেছে, আবদুস সাত্তারের বাড়িতে কয়েকটি ঘর ভাড়া দেয়ার জন্য 'টু-লেট' টাঙানো আছে কয়েক দিন ধরে। রোববার  কয়েকজন নারী ভাড়াটে সেজে ওই বাড়িতে যায়। এসময় বাড়িতে ছিলেন আবদুস সাত্তার ও তার স্ত্রী সাহেরা খাতুন। তাদের অচেতন করে বাড়ির মালপত্র লুট করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। সন্ধ্যায় স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে ৭টার দিকে সাহেরাকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। পরে রাত ৮টার দিকে আবদুস সাত্তারও মারা যান।

ডেমরা থানার ওসি সিদ্দিকুর রহমান জানান, কারা পরিচয় গোপন করে ওই বাসায় ঢুকেছে, তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

ঢামেক হাসপাতাল ক্যাম্পের এএসআই বাবুল মিয়া জানান, মরদেহ দু’টি ময়নাতদন্তের জন্য জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

রাজধানীতে ভাড়াটিয়া সেজে লুটপাট, প্রাণ গেল দম্পতির


রাজধানীতে ভাড়াটিয়া সেজে লুটপাট, প্রাণ গেল দম্পতির

রোববার সারুলিয়ার পূর্ব বপনগরে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেশীরা জানান, বাড়ি ভাড়া নেয়ার কথা বলে পাঁচ নারী বাসায় ঢুকে তাদের অচেতন করে। পরে তাদের ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হলে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে চিকিৎসক সাহারা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে আব্দুস সাত্তারও মারা যান।

জানা গেছে, আবদুস সাত্তারের বাড়িতে কয়েকটি ঘর ভাড়া দেয়ার জন্য 'টু-লেট' টাঙানো আছে কয়েক দিন ধরে। রোববার  কয়েকজন নারী ভাড়াটে সেজে ওই বাড়িতে যায়। এসময় বাড়িতে ছিলেন আবদুস সাত্তার ও তার স্ত্রী সাহেরা খাতুন। তাদের অচেতন করে বাড়ির মালপত্র লুট করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। সন্ধ্যায় স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে ৭টার দিকে সাহেরাকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। পরে রাত ৮টার দিকে আবদুস সাত্তারও মারা যান।

ডেমরা থানার ওসি সিদ্দিকুর রহমান জানান, কারা পরিচয় গোপন করে ওই বাসায় ঢুকেছে, তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

ঢামেক হাসপাতাল ক্যাম্পের এএসআই বাবুল মিয়া জানান, মরদেহ দু’টি ময়নাতদন্তের জন্য জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে।

বিডিপ্রেস/আরজে