BDpress

রানীশংকৈলে ধরা পড়ল নীলগাই

জেলা প্রতিবেদক

অ+ অ-
রানীশংকৈলে ধরা পড়ল নীলগাই
ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে ধাওয়া করে একটি নীলগাই আটক করেছে এলাকাবাসী। উপজেলা যদুয়ার গ্রামের কুলিক নদীর পাড় থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এলাকাবাসী দুর্লভ প্রজাতির এই গাভিটিকে আটক করে।

পরে যদুয়ার এলাকায় জাহিদ নামে এক যুবকের বাড়িতে নিয়ে রাখা হয় নীলগাইটিকে। খবর পেয়ে বন বিভাগের কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান, রানীশংকৈল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

রানীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌসুমী আফরোজা বলেন, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে নীলগাইটিকে যদুয়া এলাকা থেকে উদ্ধার করে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুরের রামসাগর জাতীয় উদ্যানে পাঠানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক আখতারুজ্জামান বলেন, নীলগাইটি এলাকাবাসী আটক করার সময় কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ জেলায় চিকিৎসাব্যবস্থা না থাকায় উদ্ধারকৃত নীলগাইটিকে দিনাজপুর জাতীয় উদ্যানে পাঠানো হয়েছে।

নীলগাইটি সুস্থ হলে পরবর্তীতে সেটিকে কোথায় পাঠানো হবে- তা বন বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

স্থানীয়রা জানায়, নীলগাইটি প্রায় ৩ মাস ধরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রহিমানপুর পটুয়া এলাকায় বসবাস করছিল। গ্রামবাসীদের ধারণা, নীলগাইটি ভারত থেকে বাংলাদেশের ভেতরে ঢুকে পড়ে। ফসল নষ্ট করায় সবাই মিলে নীলগাইটিকে আটক করা হয়।

রানীশংকৈল উপজেলার বন বিভাগের কর্মকর্তা শাহজাহান আলী জানান, নীলগাইটি দিনাজপুরের জাতীয় উদ্যানে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

রানীশংকৈলে ধরা পড়ল নীলগাই


রানীশংকৈলে ধরা পড়ল নীলগাই

পরে যদুয়ার এলাকায় জাহিদ নামে এক যুবকের বাড়িতে নিয়ে রাখা হয় নীলগাইটিকে। খবর পেয়ে বন বিভাগের কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান, রানীশংকৈল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

রানীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌসুমী আফরোজা বলেন, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে নীলগাইটিকে যদুয়া এলাকা থেকে উদ্ধার করে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুরের রামসাগর জাতীয় উদ্যানে পাঠানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক আখতারুজ্জামান বলেন, নীলগাইটি এলাকাবাসী আটক করার সময় কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ জেলায় চিকিৎসাব্যবস্থা না থাকায় উদ্ধারকৃত নীলগাইটিকে দিনাজপুর জাতীয় উদ্যানে পাঠানো হয়েছে।

নীলগাইটি সুস্থ হলে পরবর্তীতে সেটিকে কোথায় পাঠানো হবে- তা বন বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

স্থানীয়রা জানায়, নীলগাইটি প্রায় ৩ মাস ধরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রহিমানপুর পটুয়া এলাকায় বসবাস করছিল। গ্রামবাসীদের ধারণা, নীলগাইটি ভারত থেকে বাংলাদেশের ভেতরে ঢুকে পড়ে। ফসল নষ্ট করায় সবাই মিলে নীলগাইটিকে আটক করা হয়।

রানীশংকৈল উপজেলার বন বিভাগের কর্মকর্তা শাহজাহান আলী জানান, নীলগাইটি দিনাজপুরের জাতীয় উদ্যানে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বিডিপ্রেস/আরজে