BDpress

এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রস্তুত মারিয়ারা

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রস্তুত মারিয়ারা
জামাল ভুঁইয়া-মামুনুলরা বিদায় নিয়েছেন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্ব থেকে। জাতীয় ফুটবল দল কয়েক দিনের মধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করবে ১ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়ানো বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে। ছেলেদের সাফ ব্যর্থতার আগে মেয়েদের অনূর্ধ্ব-১৫ দলও শিরোপা হারিয়ে এসেছে ভুটান থেকে। এবার সেই মেয়েরা ঘরের মাঠে নামছে আরো বড় টুর্নামেন্টে।

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদেশের মেয়েদের জন্য স্মরণীয়। সর্বশেষ আসরে বাংলাদেশ খেলেছিল চূড়ান্ত পর্বে। বাছাই পর্বে ঘরের মাঠে প্রতিপক্ষের জালে গোল উৎসব করেছিল লাল-সবুজ জার্সিধারী কিশোরীরা। আবার সেই টুর্নামেন্টের বাছাই পর্ব, আবারও বাংলাদেশের মেয়েরা খেলবে ঘরের মাঠে।

টুর্নামেন্টের ‘এফ’ গ্রুপের খেলা হবে ঢাকায়। বাংলাদেশ, ভিয়েতনাম, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও লেবানন খেলবে ঢাকার গ্রুপে। মেয়েদের এই টুর্নামেন্টে এবার দল বাড়ায় ফরম্যাটেও পরিবর্তন এনেছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। আগের আসরে গ্রুপ চ্যাম্পিয়নরা উঠেছিল চূড়ান্ত পর্বে। এবার চূড়ান্ত পর্বে যেতে দুটি সিঁড়ি ভাঙ্গতে হবে দলগুলোকে।

প্রথম রাউন্ডের ৬ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও সেরা দুই রানার্সআপ দল উঠবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। ৮ দল দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবে ২ গ্রুপে। সেখান থেকে চারটি দল উঠবে চূড়ান্ত পর্বে। চূড়ান্ত পর্বের আয়োজক এবারও থাইল্যান্ড। স্বাগতিক থাইল্যান্ড এবং উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সরাসরি খেলবে শিরোপা নির্ধারণী পর্বে।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে যে দলটি নিয়ে নারী দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন থাইল্যান্ডে খেলে এসেছেন তাদের ১১ জনই পাচ্ছেন না এবার। বয়স ১৬ পার হয়ে যাওয়ায় ওই দলের অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী সরকার, গোলরক্ষক রোকসানা, ডিফেন্ডার মাসুরা পারভীন, শিউলি আজিম, নার্গিস, মৌসুমি, রত্না, স্বপ্না, সানজিদা, মারজিয়া ও রাজিয়ারা নেই এই দলে।

তবে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন তা নিয়ে শঙ্কিত নন। অনূর্ধ্ব-১৫ দলের যে মেয়েরা দুটি সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ খেলে একটিতে চ্যাম্পিয়ন ও একটিতে রানার্সআপ হয়েছে তারা অনেক প্রতিভাবান উল্লেখ করে কোচ বলেন,‘মেয়েরা প্রস্তুতির মধ্যেই ছিল। আশা করি, ভালো খেলবো। এবার ফরম্যাটের পরিবর্তন এসেছে। আমাদের প্রথম লক্ষ্য শেষ আটে থেকে দ্বিতীয় পর্বে ওঠা।’

কৃষ্ণা রানী সরকার না থাকায় এবার নতুন অধিনায়ক পাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৬ দল। কোচ ছোটন এখনো অধিনায়ক ঘোষণা করেননি। তবে অনূর্ধ্ব-১৫ দলের নেতৃত্ব দেয়া মারিয়া মান্ডার হাতেই উঠবে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড সেটা নিশ্চিত।

বাংলাদেশের মেয়েরা প্রথম ম্যাচ খেলবে ১৭ সেপ্টেম্বর বাহরাইনের বিরুদ্ধে। ১৯ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ম্যাচের প্রতিপক্ষ লেবানন। বাংলাদেশ তৃতীয় ম্যাচ খেলবে ২১ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে এবং গ্রুপের শেষ ম্যাচ ২৩ সেপেটম্বর ভিয়েতনামের সঙ্গে।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রস্তুত মারিয়ারা


এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রস্তুত মারিয়ারা

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদেশের মেয়েদের জন্য স্মরণীয়। সর্বশেষ আসরে বাংলাদেশ খেলেছিল চূড়ান্ত পর্বে। বাছাই পর্বে ঘরের মাঠে প্রতিপক্ষের জালে গোল উৎসব করেছিল লাল-সবুজ জার্সিধারী কিশোরীরা। আবার সেই টুর্নামেন্টের বাছাই পর্ব, আবারও বাংলাদেশের মেয়েরা খেলবে ঘরের মাঠে।

টুর্নামেন্টের ‘এফ’ গ্রুপের খেলা হবে ঢাকায়। বাংলাদেশ, ভিয়েতনাম, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও লেবানন খেলবে ঢাকার গ্রুপে। মেয়েদের এই টুর্নামেন্টে এবার দল বাড়ায় ফরম্যাটেও পরিবর্তন এনেছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। আগের আসরে গ্রুপ চ্যাম্পিয়নরা উঠেছিল চূড়ান্ত পর্বে। এবার চূড়ান্ত পর্বে যেতে দুটি সিঁড়ি ভাঙ্গতে হবে দলগুলোকে।

প্রথম রাউন্ডের ৬ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও সেরা দুই রানার্সআপ দল উঠবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। ৮ দল দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবে ২ গ্রুপে। সেখান থেকে চারটি দল উঠবে চূড়ান্ত পর্বে। চূড়ান্ত পর্বের আয়োজক এবারও থাইল্যান্ড। স্বাগতিক থাইল্যান্ড এবং উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সরাসরি খেলবে শিরোপা নির্ধারণী পর্বে।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে যে দলটি নিয়ে নারী দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন থাইল্যান্ডে খেলে এসেছেন তাদের ১১ জনই পাচ্ছেন না এবার। বয়স ১৬ পার হয়ে যাওয়ায় ওই দলের অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী সরকার, গোলরক্ষক রোকসানা, ডিফেন্ডার মাসুরা পারভীন, শিউলি আজিম, নার্গিস, মৌসুমি, রত্না, স্বপ্না, সানজিদা, মারজিয়া ও রাজিয়ারা নেই এই দলে।

তবে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন তা নিয়ে শঙ্কিত নন। অনূর্ধ্ব-১৫ দলের যে মেয়েরা দুটি সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ খেলে একটিতে চ্যাম্পিয়ন ও একটিতে রানার্সআপ হয়েছে তারা অনেক প্রতিভাবান উল্লেখ করে কোচ বলেন,‘মেয়েরা প্রস্তুতির মধ্যেই ছিল। আশা করি, ভালো খেলবো। এবার ফরম্যাটের পরিবর্তন এসেছে। আমাদের প্রথম লক্ষ্য শেষ আটে থেকে দ্বিতীয় পর্বে ওঠা।’

কৃষ্ণা রানী সরকার না থাকায় এবার নতুন অধিনায়ক পাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৬ দল। কোচ ছোটন এখনো অধিনায়ক ঘোষণা করেননি। তবে অনূর্ধ্ব-১৫ দলের নেতৃত্ব দেয়া মারিয়া মান্ডার হাতেই উঠবে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড সেটা নিশ্চিত।

বাংলাদেশের মেয়েরা প্রথম ম্যাচ খেলবে ১৭ সেপ্টেম্বর বাহরাইনের বিরুদ্ধে। ১৯ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ম্যাচের প্রতিপক্ষ লেবানন। বাংলাদেশ তৃতীয় ম্যাচ খেলবে ২১ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে এবং গ্রুপের শেষ ম্যাচ ২৩ সেপেটম্বর ভিয়েতনামের সঙ্গে।

বিডিপ্রেস/আরজে