BDpress

ধনীদের দ্রুত সম্পদ বাড়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
ধনীদের দ্রুত সম্পদ বাড়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ
যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ভারতের ধনকুবদের সম্পদের পরিমাণ দ্রুত বাড়ছে। তবে তার চেয়ে দ্রুতগতিতে বাড়ছে বাংলাদেশি ধনকুবেরদের সম্পদ।যুক্তরাজ্যভিত্তিক সম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়েলথএক্সের প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত পাঁচ বছরে ধনীদের সম্পদ বৃদ্ধির বিবেচনায় বাংলাদেশ শীর্ষে রয়েছে।

ব্যক্তিগত মোট সম্পদের আনুমানিক তথ্য, সম্পদের মালিকানা ও বিনিয়োগযোগ্য সম্পদের তথ্যের ওপর জরিপ চালিয়ে প্রতিষ্ঠানটি এ প্রতিবেদন তুলে ধরেছে।

বৈশ্বিকভাবে সম্পদের এ ধরনের বিশ্লেষণ ছাড়াও শীর্ষ ৭৫টি অর্থনীতির দেশে সম্পদের ব্যাপ্তি ও প্রবৃদ্ধি নিয়ে গবেষণা চালায় ওয়েলথএক্স।

প্রতিষ্ঠানটির কাছে থাকা বিশ্বব্যাপী অত্যধিক সম্পদশালী ১ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষের তথ্যভাণ্ডার ব্যবহার করা হয়। এতে আর্থিক স্থিতি, কর্মজীবন, ঘনিষ্ঠ সহযোগী, পারিবারিক তথ্য, শিক্ষাজীবন, আগ্রহ, শখসহ সম্পদশালীদের ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্য রয়েছে। পাশাপাশি অর্জিত সম্পদের বিনিয়োগ ও ব্যয়প্রবণতার তথ্যও বিবেচনায় নেয়া হয়।

চলতি মাসে ওয়েলথএক্সের ‘ওয়ার্ল্ড আলট্রা ওয়েলথ রিপোর্ট ২০১৮’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যেখানে বলা হয়, ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে ধনকুবেরদের সামগ্রিক সম্পদের বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ১৭ দশমিক ৩ শতাংশ। আর ধনীদের সম্পদ প্রবৃদ্ধির এ হারের সুবাদে ওয়েলথএক্সের তৈরি তালিকায় শীর্ষ দশের প্রথম স্থানটিই বাংলাদেশের।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশের পরে রয়েছে চীন, ভিয়েতনাম, কেনিয়া, ভারত, হংকং, আয়ারল্যান্ড, ইসরায়েল, পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্র।

যেখানে চীনের ধনকুবেরদের দ্রুত সম্পদ বৃদ্ধির হার ১৩ দশমিক ৪, ভিয়েতনামের ১২ দশমিক ৭, কেনিয়ার ১১ দশমিক ৭ ও ভারতের ১০ দশমিক ৭ শতাংশ। এছাড়া পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্রের ধনকুবেরদের প্রবৃদ্ধির হার ৮ দশমিক ৪ ও ৮ দশমিক ১ শতাংশ।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ধনীদের দ্রুত সম্পদ বাড়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ


ধনীদের দ্রুত সম্পদ বাড়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

ব্যক্তিগত মোট সম্পদের আনুমানিক তথ্য, সম্পদের মালিকানা ও বিনিয়োগযোগ্য সম্পদের তথ্যের ওপর জরিপ চালিয়ে প্রতিষ্ঠানটি এ প্রতিবেদন তুলে ধরেছে।

বৈশ্বিকভাবে সম্পদের এ ধরনের বিশ্লেষণ ছাড়াও শীর্ষ ৭৫টি অর্থনীতির দেশে সম্পদের ব্যাপ্তি ও প্রবৃদ্ধি নিয়ে গবেষণা চালায় ওয়েলথএক্স।

প্রতিষ্ঠানটির কাছে থাকা বিশ্বব্যাপী অত্যধিক সম্পদশালী ১ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষের তথ্যভাণ্ডার ব্যবহার করা হয়। এতে আর্থিক স্থিতি, কর্মজীবন, ঘনিষ্ঠ সহযোগী, পারিবারিক তথ্য, শিক্ষাজীবন, আগ্রহ, শখসহ সম্পদশালীদের ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্য রয়েছে। পাশাপাশি অর্জিত সম্পদের বিনিয়োগ ও ব্যয়প্রবণতার তথ্যও বিবেচনায় নেয়া হয়।

চলতি মাসে ওয়েলথএক্সের ‘ওয়ার্ল্ড আলট্রা ওয়েলথ রিপোর্ট ২০১৮’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যেখানে বলা হয়, ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে ধনকুবেরদের সামগ্রিক সম্পদের বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ১৭ দশমিক ৩ শতাংশ। আর ধনীদের সম্পদ প্রবৃদ্ধির এ হারের সুবাদে ওয়েলথএক্সের তৈরি তালিকায় শীর্ষ দশের প্রথম স্থানটিই বাংলাদেশের।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশের পরে রয়েছে চীন, ভিয়েতনাম, কেনিয়া, ভারত, হংকং, আয়ারল্যান্ড, ইসরায়েল, পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্র।

যেখানে চীনের ধনকুবেরদের দ্রুত সম্পদ বৃদ্ধির হার ১৩ দশমিক ৪, ভিয়েতনামের ১২ দশমিক ৭, কেনিয়ার ১১ দশমিক ৭ ও ভারতের ১০ দশমিক ৭ শতাংশ। এছাড়া পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্রের ধনকুবেরদের প্রবৃদ্ধির হার ৮ দশমিক ৪ ও ৮ দশমিক ১ শতাংশ।

বিডিপ্রেস/আরজে