BDpress

আইসিসির বিচারকদের বিচারের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ+ অ-
আইসিসির বিচারকদের বিচারের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের
মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্যাতন এবং আফগানিস্তানে মার্কিন সৈন্যদের দ্বারা আটক ব্যক্তিদের ওপর নির্যাতন যুদ্ধাপরাধের সামিল উল্লেখ করে এর বিচারে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) প্রধান প্রকৌশলি যে আবেদন করেছেন তাতে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আফগানিস্তানে মার্কিন সৈন্যদের বিরুদ্ধে বিচার করা হলে আইসিসির বিচারকদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী বিচার করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আইসিসিকে হুমকি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বলেন, ‘আমাদের নাগরিক ও মিত্রদের এই অবৈধ আদালতের অন্যায় বিচার প্রক্রিয়া থেকে রক্ষা করতে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেবে যুক্তরাষ্ট্র'৷

আফগানিস্তানে নিয়োজিত মার্কিন সামরিক ও গোয়েন্দা সদস্যরা তাদের হাতে আটক বন্দিদের ওপর যে নির্যাতন চালিয়েছেন, তা যুদ্ধাপরাধ কি না, সেটি তদন্ত করতে আবেদন করেছিলেন আইসিসির কৌঁসুলি ফাতু বেনসুদা। তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে খুঁটিনাটি পরীক্ষা’ করে তার মনে হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করা যায়৷

বেনসুদার এমন কথার পর বোল্টন বলেন, ‘আইসিসি যদি বিচার শুরুর চেষ্টা করে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র আইসিসির আইনজীবীদের বিরুদ্ধে লাগবে৷ আমরা তাদের বিচারক ও আইনজীবীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করব৷ যুক্তরাষ্ট্রের বিচার ব্যবস্থায় তাদের বিচার করব৷ যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে আইসিসির বিচার প্রক্রিয়ায় যে কোম্পানি ও দেশ সহায়তা করবে, তাদের বিরুদ্ধেও একই ব্যবস্থা নেয়া হবে'৷

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র ও তার সৈন্যদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিলে আইসিসিকে কোনো প্রকার সহায়তা যু্ক্তরাষ্ট্র করবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন বোল্টন।

বোল্টনের এমন সব মন্তব্যকে বিভ্রান্তিকর এবং ক্ষতিকর বলে আখ্যায়িত করেছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা। এর ফলে যু্ক্তরাষ্ট্র তার মিত্রদের থেকে আলাদা হয়ে যাবে বলে মনে করছে ‘আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন’। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের এই নীতির কারণে যুদ্ধাপরাধী ও কর্তৃত্ববাদী শাসকরা আন্তর্জাতিক জবাবদিহিতা এড়ানোর উৎসাহ পাবে বলে মনে করছে সংস্থাটি।

মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদের নিয়েই যুক্তরাষ্ট্র বেশি উদ্বিগ্ন বলে মন্তব্য করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

আইসিসির বিচারকদের বিচারের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের


আইসিসির বিচারকদের বিচারের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের

আফগানিস্তানে মার্কিন সৈন্যদের বিরুদ্ধে বিচার করা হলে আইসিসির বিচারকদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী বিচার করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আইসিসিকে হুমকি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বলেন, ‘আমাদের নাগরিক ও মিত্রদের এই অবৈধ আদালতের অন্যায় বিচার প্রক্রিয়া থেকে রক্ষা করতে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেবে যুক্তরাষ্ট্র'৷

আফগানিস্তানে নিয়োজিত মার্কিন সামরিক ও গোয়েন্দা সদস্যরা তাদের হাতে আটক বন্দিদের ওপর যে নির্যাতন চালিয়েছেন, তা যুদ্ধাপরাধ কি না, সেটি তদন্ত করতে আবেদন করেছিলেন আইসিসির কৌঁসুলি ফাতু বেনসুদা। তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে খুঁটিনাটি পরীক্ষা’ করে তার মনে হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করা যায়৷

বেনসুদার এমন কথার পর বোল্টন বলেন, ‘আইসিসি যদি বিচার শুরুর চেষ্টা করে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র আইসিসির আইনজীবীদের বিরুদ্ধে লাগবে৷ আমরা তাদের বিচারক ও আইনজীবীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করব৷ যুক্তরাষ্ট্রের বিচার ব্যবস্থায় তাদের বিচার করব৷ যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে আইসিসির বিচার প্রক্রিয়ায় যে কোম্পানি ও দেশ সহায়তা করবে, তাদের বিরুদ্ধেও একই ব্যবস্থা নেয়া হবে'৷

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র ও তার সৈন্যদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিলে আইসিসিকে কোনো প্রকার সহায়তা যু্ক্তরাষ্ট্র করবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন বোল্টন।

বোল্টনের এমন সব মন্তব্যকে বিভ্রান্তিকর এবং ক্ষতিকর বলে আখ্যায়িত করেছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা। এর ফলে যু্ক্তরাষ্ট্র তার মিত্রদের থেকে আলাদা হয়ে যাবে বলে মনে করছে ‘আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন’। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের এই নীতির কারণে যুদ্ধাপরাধী ও কর্তৃত্ববাদী শাসকরা আন্তর্জাতিক জবাবদিহিতা এড়ানোর উৎসাহ পাবে বলে মনে করছে সংস্থাটি।

মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদের নিয়েই যুক্তরাষ্ট্র বেশি উদ্বিগ্ন বলে মন্তব্য করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

বিডিপ্রেস/আরজে