BDpress

মানবতাবিরোধী অপরাধ: খালাস চেয়ে তিন আসামির আপিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
মানবতাবিরোধী অপরাধ: খালাস চেয়ে তিন আসামির আপিল
মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামি খালাস চেয়ে আপিল করেছেন। পটুয়াখালীর এই তিন আসামি আজ বুধবার সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে এই আপিল দাখিল করেন।

তাদের আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান এ আপিল দাখিল করেন। আসামিরা হলেন আব্দুল গণি হাওলাদার, আব্দুল আওয়াল ওরফে মৌলভী আওয়াল ও সোলায়মান মৃধা।

গত ১৩ আগস্ট এ সংক্রান্ত মামলায় ইসহাক সিকদারসহ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। চেয়ারম্যান বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন বিচারপতির আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ মামলার রায় দেন।

ট্রাইব্যুনালের অপর দুই বিচারক হলেন- বিচারপতি মো. আমীর হোসেন ও বিচারপতি আবু আহমেদ জমাদার।দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে থাকা এ পাঁচ আসামি হলেন- পটুয়াখালীর ইসহাক শিকদার, আব্দুলগণি হাওলাদার, আব্দুল আওয়াল ওরফে মৌলভী আওয়াল, আব্দুস সাত্তার পেদা ও সোলায়মান মৃধা। রায়ে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে সাজা কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছিলেন ট্রাইব্যুনাল।

মুক্তিযুদ্ধকালে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, অপহরণ, আটক রেখে নির্যাতন, ১৭ জনকে হত্যার ঘটনায় রাষ্ট্রপক্ষের আনা অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় মৃত্যদণ্ডের এ রায় দেওয়া হয়। এ ছাড়া পটুয়াখালীর ইটাবাড়িয়া গ্রামের অন্তত ১৫ নারীকে ধর্ষণের ঘটনাতেও একই সাজা দেন ট্রাইব্যুনাল।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

মানবতাবিরোধী অপরাধ: খালাস চেয়ে তিন আসামির আপিল


মানবতাবিরোধী অপরাধ: খালাস চেয়ে তিন আসামির আপিল

তাদের আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান এ আপিল দাখিল করেন। আসামিরা হলেন আব্দুল গণি হাওলাদার, আব্দুল আওয়াল ওরফে মৌলভী আওয়াল ও সোলায়মান মৃধা।

গত ১৩ আগস্ট এ সংক্রান্ত মামলায় ইসহাক সিকদারসহ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। চেয়ারম্যান বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন বিচারপতির আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ মামলার রায় দেন।

ট্রাইব্যুনালের অপর দুই বিচারক হলেন- বিচারপতি মো. আমীর হোসেন ও বিচারপতি আবু আহমেদ জমাদার।দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে থাকা এ পাঁচ আসামি হলেন- পটুয়াখালীর ইসহাক শিকদার, আব্দুলগণি হাওলাদার, আব্দুল আওয়াল ওরফে মৌলভী আওয়াল, আব্দুস সাত্তার পেদা ও সোলায়মান মৃধা। রায়ে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে সাজা কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছিলেন ট্রাইব্যুনাল।

মুক্তিযুদ্ধকালে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, অপহরণ, আটক রেখে নির্যাতন, ১৭ জনকে হত্যার ঘটনায় রাষ্ট্রপক্ষের আনা অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় মৃত্যদণ্ডের এ রায় দেওয়া হয়। এ ছাড়া পটুয়াখালীর ইটাবাড়িয়া গ্রামের অন্তত ১৫ নারীকে ধর্ষণের ঘটনাতেও একই সাজা দেন ট্রাইব্যুনাল।

বিডিপ্রেস/আরজে