BDpress

রেমিটেন্স বেড়েছে ১৪ শতাংশ

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
রেমিটেন্স বেড়েছে ১৪ শতাংশ
চলতি অর্থবছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে প্রবাসী বাংলাদেশিরা মোট ৩৮৬ কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন। আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা প্রায় ১৪ শতাংশ বেশি।

মূলত হুন্ডি প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিভিন্ন পদক্ষেপ ও ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা পাঠিয়ে আগের চেয়ে ভালো দাম পাওয়ায় রেমিটেন্স বাড়ছে।

এর আগে টানা দুই অর্থবছর কমার পর ২০১৭-১৮ অর্থবছর রেমিটেন্সে ১৭ দশমিক ৩২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়। একক মাস হিসেবে গত সেপ্টেম্বরে রেমিটেন্স এসেছে ১১২ কোটি ৭৩ লাখ ডলার।

আগের বছরে একই মাসে এসেছিল ৮৫ কোটি ৬৮ লাখ ডলার। এ হিসেবে আগের বছরের একই মাসের তুলনায় চলতি বছরের সেপ্টেম্ব^রে রেমিটেন্স বেড়েছে ২৭ কোটি ডলার, যা ৩১ দশমিক ৫৭ শতাংশ বেশি।

রেমিটেন্স বাড়লেও চাপে রয়েছে বৈদেশিক মুদ্রাবাজার। দীর্ঘদিন স্থিতিশীল থাকার পর আন্তঃব্যাংকে গত কয়েক দিনে ডলারের দাম বাড়ছে।

ডলারের বাড়তি চাহিদা মেটাতে গত অর্থবছর বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে ২৩১ কোটি ডলার বিক্রি করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর পরও আন্তঃব্যাংক মুদ্রাবাজারে ডলারের দর বেড়ে ৮৩ টাকা ৭৮ পয়সা বিক্রি হচ্ছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩২ বিলিয়ন ডলারে নেমেছে।
বিডিপ্রেস/আলী

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

রেমিটেন্স বেড়েছে ১৪ শতাংশ


রেমিটেন্স বেড়েছে ১৪ শতাংশ

মূলত হুন্ডি প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিভিন্ন পদক্ষেপ ও ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা পাঠিয়ে আগের চেয়ে ভালো দাম পাওয়ায় রেমিটেন্স বাড়ছে।

এর আগে টানা দুই অর্থবছর কমার পর ২০১৭-১৮ অর্থবছর রেমিটেন্সে ১৭ দশমিক ৩২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়। একক মাস হিসেবে গত সেপ্টেম্বরে রেমিটেন্স এসেছে ১১২ কোটি ৭৩ লাখ ডলার।

আগের বছরে একই মাসে এসেছিল ৮৫ কোটি ৬৮ লাখ ডলার। এ হিসেবে আগের বছরের একই মাসের তুলনায় চলতি বছরের সেপ্টেম্ব^রে রেমিটেন্স বেড়েছে ২৭ কোটি ডলার, যা ৩১ দশমিক ৫৭ শতাংশ বেশি।

রেমিটেন্স বাড়লেও চাপে রয়েছে বৈদেশিক মুদ্রাবাজার। দীর্ঘদিন স্থিতিশীল থাকার পর আন্তঃব্যাংকে গত কয়েক দিনে ডলারের দাম বাড়ছে।

ডলারের বাড়তি চাহিদা মেটাতে গত অর্থবছর বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে ২৩১ কোটি ডলার বিক্রি করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর পরও আন্তঃব্যাংক মুদ্রাবাজারে ডলারের দর বেড়ে ৮৩ টাকা ৭৮ পয়সা বিক্রি হচ্ছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩২ বিলিয়ন ডলারে নেমেছে।
বিডিপ্রেস/আলী