BDpress

মীর আক্তার হোসেনের রোড শো ১৭ অক্টোবর

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
মীর আক্তার হোসেনের রোড শো ১৭ অক্টোবর
পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করতে মীর আক্তার হোসেন লিমিটেড রোড শো করবে আগামী ১৭ অক্টোবর। রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক হোটেল সোনারগাঁওয়ে সন্ধ্যা ৭ টায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে কোম্পানিটি বাজার থেকে ১২৫ কোটি টাকা তুলতে চায়। প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও)মাধ্যমে বাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করতে কোম্পানির এ আয়োজন।

উত্তোলিত টাকায় কোম্পানিটি ৪৯ কোটি টাকা দিয়ে ভারী যন্ত্রপাতি, ১২ কোটি টাকা দিয়ে প্রধান কার্যালয়ে ভবন নির্মাণ, ১০ কোটি টাকা দিয়ে দুটি প্লান্ট, সাড়ে ১০ কোটি টাকা দিয়ে ওয়্যার হাউজ এবং ওয়ার্কশপ, ৪০ কোটি টাকা দিয়ে ব্যাংক লোন এবং বাকী সাড়ে ৩ কোটি টাকা আইপিও খরচে ব্যবহার করবে।

রোড-শোতে অংশ নেবে মার্চেন্ট ব্যাংক, পোর্টফোলিও ম্যানেজার, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড, স্টক ডিলারস, ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বিমা কোম্পানিসহ অনেক প্রতিষ্ঠান।

কোম্পানিটি ৩০ জুন, ২০১৮ সালের হিসাব বছর শেষে ৩১৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা আয় করেছে। আর কর পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ৬১ কোটি ৮৭ লাখ টাকা।
নির্মাণ কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে মীর আক্তার হোসেন লিমিটেড

কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক মানের মহাসড়ক-সেতুর পাশাপাশি বিমান বন্দরের উন্নয়ন, কল-কারখানা, হাসপাতাল, পাঁচতারা হোটেল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভবন, রেলপথ, বিদ্যুৎ উৎপাদনকেন্দ্র নির্মাণ কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে মীর আক্তার হোসেন লিমিটেড।

প্রসঙ্গত, কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্বে রয়েছে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। রেজিস্ট্রার টু দ্য ইস্যু হিসেবে কাজ করছে সিটিজেন সিকিউরিটিজ এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

মীর আক্তার হোসেনের রোড শো ১৭ অক্টোবর


মীর আক্তার হোসেনের রোড শো ১৭ অক্টোবর

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে কোম্পানিটি বাজার থেকে ১২৫ কোটি টাকা তুলতে চায়। প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও)মাধ্যমে বাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করতে কোম্পানির এ আয়োজন।

উত্তোলিত টাকায় কোম্পানিটি ৪৯ কোটি টাকা দিয়ে ভারী যন্ত্রপাতি, ১২ কোটি টাকা দিয়ে প্রধান কার্যালয়ে ভবন নির্মাণ, ১০ কোটি টাকা দিয়ে দুটি প্লান্ট, সাড়ে ১০ কোটি টাকা দিয়ে ওয়্যার হাউজ এবং ওয়ার্কশপ, ৪০ কোটি টাকা দিয়ে ব্যাংক লোন এবং বাকী সাড়ে ৩ কোটি টাকা আইপিও খরচে ব্যবহার করবে।

রোড-শোতে অংশ নেবে মার্চেন্ট ব্যাংক, পোর্টফোলিও ম্যানেজার, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড, স্টক ডিলারস, ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বিমা কোম্পানিসহ অনেক প্রতিষ্ঠান।

কোম্পানিটি ৩০ জুন, ২০১৮ সালের হিসাব বছর শেষে ৩১৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা আয় করেছে। আর কর পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ৬১ কোটি ৮৭ লাখ টাকা।
নির্মাণ কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে মীর আক্তার হোসেন লিমিটেড

কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক মানের মহাসড়ক-সেতুর পাশাপাশি বিমান বন্দরের উন্নয়ন, কল-কারখানা, হাসপাতাল, পাঁচতারা হোটেল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভবন, রেলপথ, বিদ্যুৎ উৎপাদনকেন্দ্র নির্মাণ কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে মীর আক্তার হোসেন লিমিটেড।

প্রসঙ্গত, কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্বে রয়েছে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। রেজিস্ট্রার টু দ্য ইস্যু হিসেবে কাজ করছে সিটিজেন সিকিউরিটিজ এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।