BDpress

শেয়ারবাজারে পতন অব্যাহত, বেড়েছে লেনদেন

বিডিপ্রেস ডেস্ক

অ+ অ-
শেয়ারবাজারে পতন অব্যাহত, বেড়েছে লেনদেন
বৃহস্পতিবার (০১ নভেম্বর) পতনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। একই সঙ্গে কমেছে হাত বদল হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের দিন থেকে বেড়েছে।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই ও সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, আজ ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫২৫৮ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২১৬ ও ১৮৬৫ পয়েন্টে।

আজ ডিএসইতে ৫২৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন থেকে ১৫ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫১৪ কোটি টাকা।

এদিকে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৩৭টি কোম্পানির মধ্যে ১১৮টি বা ৩৪.৫০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১৭৪টি বা ৫০.৮৭ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫০টি বা ১৪.৬২ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে এসকে ট্রিমসের। এ দিন কোম্পানির ১৯ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনা পাওয়ারের ১৮ কোটি ৪০ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১৮ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইনটেক।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইউনাইটেড পাওয়ার, নূরানী ডাইং, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, সায়হাম কটন, ফার্মা এইডস এবং ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৩০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ১৬১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৩৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ১০২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টির দর। সিএসইতে আজ মোট ৩১ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।
বিডিপ্রেস/আলী

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

শেয়ারবাজারে পতন অব্যাহত, বেড়েছে লেনদেন


শেয়ারবাজারে পতন অব্যাহত, বেড়েছে লেনদেন

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই ও সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, আজ ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫২৫৮ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২১৬ ও ১৮৬৫ পয়েন্টে।

আজ ডিএসইতে ৫২৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন থেকে ১৫ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫১৪ কোটি টাকা।

এদিকে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৩৭টি কোম্পানির মধ্যে ১১৮টি বা ৩৪.৫০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১৭৪টি বা ৫০.৮৭ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫০টি বা ১৪.৬২ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে এসকে ট্রিমসের। এ দিন কোম্পানির ১৯ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনা পাওয়ারের ১৮ কোটি ৪০ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১৮ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইনটেক।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইউনাইটেড পাওয়ার, নূরানী ডাইং, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, সায়হাম কটন, ফার্মা এইডস এবং ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৩০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ১৬১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৩৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ১০২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টির দর। সিএসইতে আজ মোট ৩১ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।
বিডিপ্রেস/আলী