BDpress

বিপিএল উৎসব শুরু আজ

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
বিপিএল উৎসব শুরু আজ
সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। প্রস্তুত সাত ফ্র্যাঞ্চাইজির ক্রিকেটাররাও। শনিবার (৫ জানুয়ারি) শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের ঘরোয়া টি২০ ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট আসর বিপিএল।

মিরপুরে প্রথম ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্স মুখোমুখি হবে চিটাগং ভাইকিংসের। ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর সাড়ে ১২টায়।

এবারের ষষ্ঠ আসরে নতুনভাবে সংযোজিত হয়েছে অনেক কিছুই। তারকা ক্রিকেটারের উপস্থিতির দিক থেকে আগের আসরকে টেক্কা দিয়েছে এবারের আয়োজন। মাঠের ক্রিকেট ব্রডকাস্টিং প্রডাকশনে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হচ্ছে স্পাইডার ক্যামেরা। সেসঙ্গে সাত দলের জার্সিতেও এসেছে নতুনত্ব।

শনিবার দ্বৈরথে নামবে রাজশাহী কিংস ও ঢাকা ডায়নামাইটসও। ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে।

মাঠের লড়াইয়ে নামার আগে গতকাল শেষবারের মতো নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী চার দল। শুক্রবার (৪ জানুয়ারি) সকালে একাডেমি মাঠে অনুশীলন করেছে রাইডার্স ও ভাইকিংস। একই মাঠে দুপুরে অনুশীলন করেছে ডায়নামাইটস ও কিংস। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার আগে সকালে দলের সঙ্গে পুরো সময় অনুশীলন করেন অধিনায়ক মাশরাফি।

শুক্রবার অনুশীলনের পর রংপুর অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, ‘আমরা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। তাই সবার মধ্যে আলাদা একটা প্রত্যাশা তৈরি হয়েছে। আর এবার আমরা আগের দলের তুলনায় কাগজে-কলমে আরো শক্তিশালী। তাই আমরা নিজেদের টার্গেট নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। তবে এ লক্ষ্য যেন দলের সাফল্যের পথে বুমেরাং না হয়, সেটিও মাথায় থাকবে। আমি মনে করি, টুর্নামেন্টটি বেশ চ্যালেঞ্জিং হবে।’

দলে যতই তারকা থাকুক না কেন, টি২০ ফরম্যাট বলেই সতর্ক মাশরাফি বলেন, ‘ফরম্যাটটা কিন্তু ওয়ানডে না। আমি নিজেও অনেকদিন ধরে টি২০ খেলার মধ্যে নেই। তাই নিজে তৈরি হওয়ার জন্যও আলাদা চ্যালেঞ্জ থাকছে। সতীর্থরাও নিজেদের যতটা সম্ভব প্রস্তুত করেছে।’ টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে রাইডার্সের মতো তারকাবহুল দল প্রতিপক্ষ হলেও নিজের দলের প্রতি অগাধ আস্থা ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের। তিনি বলেন, ‘নতুন বছরে সবাইকেই নতুন করে শুরু করতে হবে। আমরাও চাই ভালো শুরু।’

উদ্বোধনী ম্যাচে পূর্ণ শক্তি নিয়ে নামতে পারছে না মুশফিকের ভাইকিংস। দলের সঙ্গে এখনো যোগ দেননি গত আসরে দুর্দান্ত পারফর্ম করা কিউই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লুক রনকি। আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা থাকায় যোগ দেননি লংকান দাসুন সানকা। রনকির আসার ব্যাপারে সঠিক কোনো তথ্যও দিতে পারেনি দলটির ম্যানেজমেন্ট। তাই বিদেশী রিক্রুটদের মধ্যে ডেলপোর্ট, শাহজাদের সামর্থ্যের ওপরই নির্ভর করতে হচ্ছে মুশফিককে। এ প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, ‘বিপিএলে যেসব বিদেশী ক্রিকেটার ভালো করে, ব্যাপারটা কিন্তু তা নয়। এখানে দেশী ক্রিকেটারও ভালো করে। আমাদের দেশী রিক্রুট খুবই ভালো। দীর্ঘদিন পর আশরাফুল ভাই এসেছেন বিপিএলে। নিজের সেরাটা দেয়ার জন্য তিনি মুখিয়ে আছেন।’
বিডিপ্রেস/আলী

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

বিপিএল উৎসব শুরু আজ


বিপিএল উৎসব শুরু আজ

মিরপুরে প্রথম ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্স মুখোমুখি হবে চিটাগং ভাইকিংসের। ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর সাড়ে ১২টায়।

এবারের ষষ্ঠ আসরে নতুনভাবে সংযোজিত হয়েছে অনেক কিছুই। তারকা ক্রিকেটারের উপস্থিতির দিক থেকে আগের আসরকে টেক্কা দিয়েছে এবারের আয়োজন। মাঠের ক্রিকেট ব্রডকাস্টিং প্রডাকশনে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হচ্ছে স্পাইডার ক্যামেরা। সেসঙ্গে সাত দলের জার্সিতেও এসেছে নতুনত্ব।

শনিবার দ্বৈরথে নামবে রাজশাহী কিংস ও ঢাকা ডায়নামাইটসও। ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে।

মাঠের লড়াইয়ে নামার আগে গতকাল শেষবারের মতো নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী চার দল। শুক্রবার (৪ জানুয়ারি) সকালে একাডেমি মাঠে অনুশীলন করেছে রাইডার্স ও ভাইকিংস। একই মাঠে দুপুরে অনুশীলন করেছে ডায়নামাইটস ও কিংস। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার আগে সকালে দলের সঙ্গে পুরো সময় অনুশীলন করেন অধিনায়ক মাশরাফি।

শুক্রবার অনুশীলনের পর রংপুর অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, ‘আমরা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। তাই সবার মধ্যে আলাদা একটা প্রত্যাশা তৈরি হয়েছে। আর এবার আমরা আগের দলের তুলনায় কাগজে-কলমে আরো শক্তিশালী। তাই আমরা নিজেদের টার্গেট নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। তবে এ লক্ষ্য যেন দলের সাফল্যের পথে বুমেরাং না হয়, সেটিও মাথায় থাকবে। আমি মনে করি, টুর্নামেন্টটি বেশ চ্যালেঞ্জিং হবে।’

দলে যতই তারকা থাকুক না কেন, টি২০ ফরম্যাট বলেই সতর্ক মাশরাফি বলেন, ‘ফরম্যাটটা কিন্তু ওয়ানডে না। আমি নিজেও অনেকদিন ধরে টি২০ খেলার মধ্যে নেই। তাই নিজে তৈরি হওয়ার জন্যও আলাদা চ্যালেঞ্জ থাকছে। সতীর্থরাও নিজেদের যতটা সম্ভব প্রস্তুত করেছে।’ টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে রাইডার্সের মতো তারকাবহুল দল প্রতিপক্ষ হলেও নিজের দলের প্রতি অগাধ আস্থা ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের। তিনি বলেন, ‘নতুন বছরে সবাইকেই নতুন করে শুরু করতে হবে। আমরাও চাই ভালো শুরু।’

উদ্বোধনী ম্যাচে পূর্ণ শক্তি নিয়ে নামতে পারছে না মুশফিকের ভাইকিংস। দলের সঙ্গে এখনো যোগ দেননি গত আসরে দুর্দান্ত পারফর্ম করা কিউই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লুক রনকি। আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা থাকায় যোগ দেননি লংকান দাসুন সানকা। রনকির আসার ব্যাপারে সঠিক কোনো তথ্যও দিতে পারেনি দলটির ম্যানেজমেন্ট। তাই বিদেশী রিক্রুটদের মধ্যে ডেলপোর্ট, শাহজাদের সামর্থ্যের ওপরই নির্ভর করতে হচ্ছে মুশফিককে। এ প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, ‘বিপিএলে যেসব বিদেশী ক্রিকেটার ভালো করে, ব্যাপারটা কিন্তু তা নয়। এখানে দেশী ক্রিকেটারও ভালো করে। আমাদের দেশী রিক্রুট খুবই ভালো। দীর্ঘদিন পর আশরাফুল ভাই এসেছেন বিপিএলে। নিজের সেরাটা দেয়ার জন্য তিনি মুখিয়ে আছেন।’
বিডিপ্রেস/আলী