BDpress

দৈত্যাকার বাঁধাকপি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ+ অ-
দৈত্যাকার বাঁধাকপি!
সবুজ শাক-সব্জির প্রতি প্রেম অস্ট্রেলীয় নারী রোজমেরি নরউডের। সারাদিন শাক-সব্জি চাষ নিয়ে পড়ে থাকতেই ভালোবাসেন তিনি। চাষের ক্ষেত্রে নানা রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতেও পছন্দ করেন। সেই পরীক্ষা-নিরীক্ষার ফল হিসেবেই এবার বিশালাকৃতির একটি বাঁধাকপি ফলিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন তিনি। বিশাল আকৃতির এই বাঁধাকপির কারণেই এখন আলোচনায় ওই নারী।

অস্ট্রেলিয়া নিবাসী রোজমেরি এবং তাঁর স্বামী সিন ক্যাডম্যান একত্রে এই বাঁধাকপির ফলনে হাত লাগিয়ে ছিলেন। গত মে মাস থেকেই এই বাঁধাকপির চাষে মন দিয়েছিলেন তারা। চাষ করার জন্য তারা বেছে নিয়েছিলেন নিজেদের একটি পরিবেশ-বান্ধব গেস্ট হাউস।
যদিও এই বিশাল বাঁধাকপিটির জন্য সম্পূর্ণ কৃতিত্ব নিজেরাই নিতে রাজি হননি ওই দম্পতি। এ জন্য গত মরসুমে ভালো বৃষ্টিপাত ও উষ্ণ আবহাওয়াকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন তারা। এমনকি এই বাঁধাকপিটিকে বাড়তে দেওয়ার জন্য আশপাশের অন্য বাঁধাকপিগুলিকেও ছেঁটে ফেলা হয়। জাল দিয়ে ঘিরে রাখা হয় যাতে কোনও কীট-পতঙ্গ এটির ক্ষতি করতে না পারে। প্রায় ৯ মাস সময় লাগে বাঁধাকপিটির এই আকৃতিতে পৌঁছতে। আনন্দবাজার।
বিডিপ্রেস/আলী


এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

দৈত্যাকার বাঁধাকপি!


দৈত্যাকার বাঁধাকপি!

অস্ট্রেলিয়া নিবাসী রোজমেরি এবং তাঁর স্বামী সিন ক্যাডম্যান একত্রে এই বাঁধাকপির ফলনে হাত লাগিয়ে ছিলেন। গত মে মাস থেকেই এই বাঁধাকপির চাষে মন দিয়েছিলেন তারা। চাষ করার জন্য তারা বেছে নিয়েছিলেন নিজেদের একটি পরিবেশ-বান্ধব গেস্ট হাউস।
যদিও এই বিশাল বাঁধাকপিটির জন্য সম্পূর্ণ কৃতিত্ব নিজেরাই নিতে রাজি হননি ওই দম্পতি। এ জন্য গত মরসুমে ভালো বৃষ্টিপাত ও উষ্ণ আবহাওয়াকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন তারা। এমনকি এই বাঁধাকপিটিকে বাড়তে দেওয়ার জন্য আশপাশের অন্য বাঁধাকপিগুলিকেও ছেঁটে ফেলা হয়। জাল দিয়ে ঘিরে রাখা হয় যাতে কোনও কীট-পতঙ্গ এটির ক্ষতি করতে না পারে। প্রায় ৯ মাস সময় লাগে বাঁধাকপিটির এই আকৃতিতে পৌঁছতে। আনন্দবাজার।
বিডিপ্রেস/আলী