BDpress

২৪ বলে ২৩ ডট দিয়ে বিশ্বরেকর্ড ইরফান খানের

ক্রীড়া ডেস্ক

অ+ অ-
২৪ বলে ২৩ ডট দিয়ে বিশ্বরেকর্ড ইরফান খানের
৪-৩-১-২! এটা টি-টোয়েন্টি ম্যাচে একজন বোলারের বোলিং ফিগার। বিশ্বাস হয়? অবিশ্বাস্য ঠেকলেও ক্যারিবীয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) এমন বোলিংয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়ে ফেলেছেন পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ ইরফান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে চার ওভারের কোটা পূরণ করে সবচেয়ে কম ইকোনমি আর সবচেয়ে বেশি ডট দেয়ার রেকর্ডটি এখন তারই দখলে।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৪ ওভারের বোলিং কোটা পূরণ করে সবচেয়ে কম রান দেয়ার রেকর্ডটি কত? এতদিন ৪ ওভারে সবচেয়ে কম রান দেয়ার রেকর্ড ছিল যৌথভাবে দুজনের দখলে। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস আর শ্রীলঙ্কার শানাকা ওয়েলেগেদারা ৪ ওভারে ২ রান দিয়ে এই তালিকায় সবার উপরে ছিলেন।

এবার সেটি ছাড়িয়ে গেছেন মোহাম্মদ ইরফান। শনিবার রাতে সিপিএলে বার্বাডোজ টাইট্রেন্টসের হয়ে ৪ ওভারে তিনি দিয়েছেন মাত্র ১ রান। যেটি টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে পুরো ওভারের কোটা পূরণ করে দেয়া সবচেয়ে কম রানের রেকর্ড। ইরফানের এই ২৪ বলের মধ্যে ২৩টিই ছিল ডট। যা কিনা আরেক রেকর্ড।

চার ওভারে ইরফান মেডেন নিয়েছেন ৩টি। এমন রেকর্ড অবশ্য আছে দুজনের। ২০১৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস আর ২০১২ সালে ভারতের মানপ্রিত গণি ৪ ওভারে ৩টি মেডেন দেয়ার রেকর্ড গড়েন। তবে মরিস ২ আর গণি ৪ ওভার শেষে দিয়েছিলেন ৫ রান।

শনিবার রাতে ইরফানের বোলিং ইকোনমি ছিল ০.২৫। চার ওভারের কোটায় এটি রেকর্ড হলেও সবমিলিয়ে এই জায়গায় এগিয়ে রয়েছেন বাংলাদেশেরই আরাফাত সানী। ২০১৬ সালের নভেম্বরে বিপিএল টুর্নামেন্টে ২.৪ ওভার বল করে কোনো রান না দিয়েই ৩ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। ইকোনমি ছিল ০.০০।

একইরকম ইকোনমির রেকর্ড আছে শ্রীলঙ্কার নুয়ান কুলাসেকারার। ২০১৪ সালে চট্টগ্রামে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ২ ওভার বল করে কোনো রান না দিয়ে ১টি উইকেট পেয়েছিলেন তিনি।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

২৪ বলে ২৩ ডট দিয়ে বিশ্বরেকর্ড ইরফান খানের


২৪ বলে ২৩ ডট দিয়ে বিশ্বরেকর্ড ইরফান খানের

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৪ ওভারের বোলিং কোটা পূরণ করে সবচেয়ে কম রান দেয়ার রেকর্ডটি কত? এতদিন ৪ ওভারে সবচেয়ে কম রান দেয়ার রেকর্ড ছিল যৌথভাবে দুজনের দখলে। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস আর শ্রীলঙ্কার শানাকা ওয়েলেগেদারা ৪ ওভারে ২ রান দিয়ে এই তালিকায় সবার উপরে ছিলেন।

এবার সেটি ছাড়িয়ে গেছেন মোহাম্মদ ইরফান। শনিবার রাতে সিপিএলে বার্বাডোজ টাইট্রেন্টসের হয়ে ৪ ওভারে তিনি দিয়েছেন মাত্র ১ রান। যেটি টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে পুরো ওভারের কোটা পূরণ করে দেয়া সবচেয়ে কম রানের রেকর্ড। ইরফানের এই ২৪ বলের মধ্যে ২৩টিই ছিল ডট। যা কিনা আরেক রেকর্ড।

চার ওভারে ইরফান মেডেন নিয়েছেন ৩টি। এমন রেকর্ড অবশ্য আছে দুজনের। ২০১৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস আর ২০১২ সালে ভারতের মানপ্রিত গণি ৪ ওভারে ৩টি মেডেন দেয়ার রেকর্ড গড়েন। তবে মরিস ২ আর গণি ৪ ওভার শেষে দিয়েছিলেন ৫ রান।

শনিবার রাতে ইরফানের বোলিং ইকোনমি ছিল ০.২৫। চার ওভারের কোটায় এটি রেকর্ড হলেও সবমিলিয়ে এই জায়গায় এগিয়ে রয়েছেন বাংলাদেশেরই আরাফাত সানী। ২০১৬ সালের নভেম্বরে বিপিএল টুর্নামেন্টে ২.৪ ওভার বল করে কোনো রান না দিয়েই ৩ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। ইকোনমি ছিল ০.০০।

একইরকম ইকোনমির রেকর্ড আছে শ্রীলঙ্কার নুয়ান কুলাসেকারার। ২০১৪ সালে চট্টগ্রামে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ২ ওভার বল করে কোনো রান না দিয়ে ১টি উইকেট পেয়েছিলেন তিনি।

বিডিপ্রেস/আরজে