BDpress

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে চীনের আগ্রহ প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ+ অ-
ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে চীনের আগ্রহ প্রকাশ
ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে চীন সরকার বাংলাদেশের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করতে আবারো আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

বুধবার আগারগাঁওস্থ আইসিটি টাওয়ার কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত জাং ঝু ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এই আগ্রহের কথা প্রকাশ করেছেন।

বর্তমানে এই খাতের সঙ্গে চীনের বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, টেলিকম কোম্পানি হুয়েই জেডটিইসহ চীনের বিভিন্ন খ্যাতনামা কোম্পানি বাংলাদেশে আইসিটি ও টেলিযোগাযোগ খাতে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

তিনি নতুন নতুন প্রকল্পে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আইসিটি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে অধিক হারে সহযোগিতার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত সবার কাছে ইন্টারনেট সুবিধা পৌঁছে দিতে ডিজিটাল সংযোগ স্থাপন (ইডিসি) প্রকল্প অনতিবিলম্বে শুরু করার বিষয়ে উভয় দেশ একমত পোষণ করে।

এ সময় তারা দুই দেশের পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের ইনফো সরকার ৩য় পর্যায় প্রকল্প, ডাটা সেন্টার প্রকল্প, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মডার্নাইজেশন অব টেলিকমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক (এমওটিএন) প্রকল্পসহ চীন সরকার ও সে দেশের বিভিন্ন কোম্পানির অর্থায়নে পরিচালিত প্রকল্পসমূহের সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়েও তারা আলোচনা করেন।

চীন বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী ও দীর্ঘ পরীক্ষিত বন্ধু উল্লেখ করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অতীতের মতো ভবিষ্যতেও চীনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। মন্ত্রী আইসিটি, টেলিকমিউনিকেশনসহ বিভিন্ন খাতে অধিকহারে অর্থায়নসহ আরও সহযোগিতার জন্য চীনের প্রতি আহ্বান জানান।

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের দ্বিতীয় সচিব এলভি ইয়াংসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বিডিপ্রেস/আরজে

এ সম্পর্কিত অন্যান্য খবর

BDpress

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে চীনের আগ্রহ প্রকাশ


ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে চীনের আগ্রহ প্রকাশ

বুধবার আগারগাঁওস্থ আইসিটি টাওয়ার কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত জাং ঝু ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এই আগ্রহের কথা প্রকাশ করেছেন।

বর্তমানে এই খাতের সঙ্গে চীনের বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, টেলিকম কোম্পানি হুয়েই জেডটিইসহ চীনের বিভিন্ন খ্যাতনামা কোম্পানি বাংলাদেশে আইসিটি ও টেলিযোগাযোগ খাতে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

তিনি নতুন নতুন প্রকল্পে অংশগ্রহণের মাধ্যমে আইসিটি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে অধিক হারে সহযোগিতার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত সবার কাছে ইন্টারনেট সুবিধা পৌঁছে দিতে ডিজিটাল সংযোগ স্থাপন (ইডিসি) প্রকল্প অনতিবিলম্বে শুরু করার বিষয়ে উভয় দেশ একমত পোষণ করে।

এ সময় তারা দুই দেশের পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের ইনফো সরকার ৩য় পর্যায় প্রকল্প, ডাটা সেন্টার প্রকল্প, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মডার্নাইজেশন অব টেলিকমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক (এমওটিএন) প্রকল্পসহ চীন সরকার ও সে দেশের বিভিন্ন কোম্পানির অর্থায়নে পরিচালিত প্রকল্পসমূহের সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়েও তারা আলোচনা করেন।

চীন বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী ও দীর্ঘ পরীক্ষিত বন্ধু উল্লেখ করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অতীতের মতো ভবিষ্যতেও চীনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। মন্ত্রী আইসিটি, টেলিকমিউনিকেশনসহ বিভিন্ন খাতে অধিকহারে অর্থায়নসহ আরও সহযোগিতার জন্য চীনের প্রতি আহ্বান জানান।

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের দ্বিতীয় সচিব এলভি ইয়াংসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বিডিপ্রেস/আরজে